| ২৫শে আগস্ট, ২০১৯ ইং | ১০ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২৩শে জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী | রবিবার

নরসিংদীর বেলাবতে বাসচাপায় এইচএসসি পরীক্ষার্থীর মৃত্যু প্রতিবাদে মহাসড়ক অবরোধ


নিজস্ব প্রতিবেদক, নরসিংদী
নরসিংদীর বেলাবতে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে বাস চাপায় শারমীন আক্তার (১৭) নামে এক এইচএসসি পরীক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার সকালে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের বেলাব উপজেলার দড়িকান্দি নামক স্থানে এ দূর্ঘটনা ঘটেছে। দুর্ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষুদ্ধ কলেজ শিক্ষার্থীরা দুপুরে প্রায় ১ ঘন্টা ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। খবর পেয়ে ভৈরব হাইওয়ে পুলিশ চেষ্টা চালিয়ে মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক করে।
নিহত শারমীন আক্তার বেলাব উপজেলার নারায়ণপুর রাবেয়া মহাবিদ্যালয়ের ছাত্রী। সে রায়পুরা উপজেলার বড়চর গ্রামের বাসিন্দা নুরুল ইসলামের মেয়ে।
পুলিশ, কলেজ কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয়রা জানান, সকালে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য বাড়ি থেকে নারায়ণপুর রাবেয়া মহাবিদ্যালয়ের পরীক্ষা কেন্দ্রে যাচ্ছিল শারমীন আক্তার। যাওয়ার পথে বেলাব উপজেলার দড়িকান্দি বাসস্ট্যান্ডে মহাসড়ক পার হওয়ার সময় ঢাকা থেকে কিশোরগঞ্জগামী যাতায়াত পরিবহনের একটি যাত্রীবাহি বাস শারমীনকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। গুরুতর আহতাবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এ সময় তার মৃত্যুর খবর নারায়ণপুর কলেজে ছড়িয়ে পড়লে বেলা ১২টার দিকে কয়েকশত বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থী নারায়ণপুর বাসস্ট্যান্ডে গিয়ে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। এ সময় কয়েকটি যাত্রীবাহি বাসে ভাংচুর চালায় তারা। খবর পেয়ে ভৈরব হাইওয়ে পুলিশ ১ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে ছাত্রছাত্রীদের সরিয়ে দিলে মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।
নিহতের বাবা নুরুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, মেয়ের ইচ্ছা ছিল পড়াশুনা করে অনেক বড় হবে। কিন্তু বেপরোয়া বাস সেই স্বপ্ন কেড়ে নিল। এভাবে আর কত বাবাকে মেয়ে হারাতে হবে।
ভৈরব হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, নিহতের পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের অনুমতিতে নিহতের লাশ বিনা ময়নাতদন্তে স্বজনদের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। ঘাটক যাত্রীবাহী বাসটি সনাক্তের চেষ্টা চলছে। এই ঘটনায় বেলাব থানায় মামলা দায়েরের প্রস্ততি চলছে।

লক্ষন বর্মন

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *