| ২৫শে আগস্ট, ২০১৯ ইং | ১০ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২৩শে জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী | রবিবার

জাকির পুলিশের হেফাজতে মারা যায়নি: আইজিপি

নিউজ ডেস্ক, বৃহস্পতিবার, ১৫ মার্চ ২০১৮:

ঢাকা মহানগর উত্তরের ছাত্রদলের সহ-সভাপতি ও তেজগাঁও থানা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির হোসেন মিলন পুলিশ হেফাজতে মারা গেছেন বলে বিএনপি যে অভিযোগ করেছে তা সঠিক নয় বলে দাবি করেছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

তিনি বলেন, পুলিশি হেফাজতে যদি কোনো মৃত্যুর ঘটনা ঘটে, তাহলে রুলস অ্যান্ড রেগুলেশন অনুযায়ী জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে, সম্প্রতি ঢাকায় নিহত ছাত্রদল নেতা জাকির হোসেন মিলনের পরিবারের অভিযোগ ইঙ্গিত করে জাকির পুলিশের হেফাজতে মারা যায়নি বলে দাবি করেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে জাকিরের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ মার্চ) বিকেলে নগরীর বয়রা পুলিশ লাইনস মাঠে মহানগর বিট পুলিশিং কার্যক্রম উদ্বোধন এবং মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদবিরোধী সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

আইজিপি বলেন, ‘মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ সামাজিক সমস্যা। এসব সমস্যা সামাজিকভাবেই মোকাবেলা করতে হবে। মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণে পুলিশ একটি ফোর্স হিসেবে কাজ করে। কিন্তু এটি পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ করতে হলে পরিবার, সমাজ এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সব সামাজিক সংগঠনকে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে। এভাবে সমাজের সবাই এগিয়ে এলে সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমরা সফল হতে পারব।’

পুলিশের এই প্রধান কর্তা বলেন, ‘সমাজের সব শ্রেণী-পেশার মানুষকে নিয়ে তিনি সুধী সমাবেশ করছেন। পুলিশের সব ইউনিট কর্মকর্তাদের সঙ্গেও আলাপ-আলোচনা করা হচ্ছে। এসব কিছুর মধ্য দিয়েই মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণে কর্মপন্থা নির্ধারণ করা হবে।’

খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ-কেএমপি কমিশনার মো. হুমায়ুন কবির সভাপতিত্বে সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন তালুকদার আব্দুল খালেক এমপি, বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এমপি, মিজানুর রহমান মিজান এমপি, বিভাগীয় কমিশনার লোকমান হোসেন মিয়া, রেঞ্জ ডিআইজি মো. দিদার আহম্মদ, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ ও জেলা প্রশাসক মো. আমিন উল আহসান।

এছাড়া সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন মহানগর কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সভাপতি ডা. একেএম কামরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক শেখ সৈয়দ আলী, জেলা সভাপতি মকবুল হোসেন মিন্টু, অ্যাড. সাইফুল ইসলাম প্রমুখ ।

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *