1. nahidprodhan143@gmail.com : নরসিংদী প্রতিদিন : নরসিংদী প্রতিদিন
  2. khandakarshahin@gmail.com : Breaking News : Breaking News
  3. laxman87barman@gmail.com : laxman barman : laxman barman
  4. narsingdipratidin.mail@gmail.com : narsingdi :
  5. news@narsingdipratidin.com : নরসিংদী প্রতিদিন : নরসিংদী প্রতিদিন
  6. msprovat@gmail.com : ms provat : ms provat
  7. hsabbirhossain542@gmail.com : সাব্বির হোসেন : সাব্বির হোসেন
  8. subeditor@narsingdipratidin.com : Narsingdi Pratidin : Narsingdi Pratidin
শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:৩৫ পূর্বাহ্ন



তামিম-বন্দনায় ভাসছে সোস্যাল মিডিয়া

রিপোর্টারের নাম
  • প্রকাশিত সোমবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

ফেসবুক প্রতিদিন, সোমবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮:
দলীয় ২২৯ রানে মোস্তাফিজ আউট হলে অনেকেই ঝটপট টিভিটা বন্ধ করে দিয়েছেন। ইনিংস শেষ ভেবে অনেকেই এফএম রেডিওর হেডফোনটা কান থেকে খুলে রেখেছেন। কিন্তু তখনও যে খেলা বাকি। তখনও যে তামিম প্রস্তুত হচ্ছেন মাঠে নামতে।

হ্যাঁ, এটা ঠিক যে তামিম হয়তো এক হাতে একটি বলই মোকাবিলা করেছেন। রান হয়তো একটিও করেননি। তাতে কি! ক্রিকেটকে যে বলা হয় মনস্তাত্ত্বিক খেলাও। আর সেই মাইন্ড গেম খেলতে তো লঙ্কান কোচ হাথুরু সিদ্ধহস্ত। তবে কি হাথুরুর সঙ্গে মাইন্ড গেম খেলতেই তামিম এক হাতে মাঠে নেমেছিলেন।

এসব অনেক গুঞ্জন, কৌতুহল, প্রশ্নই থাকতে পারে। তবে তামিম যে কাল করলেন এরপর তাকে প্রশংসা না ভাসিয়ে তাকে শ্রদ্ধা না করে আর থাকা যায় না। হ্যাঁ, টাইগার ক্রিকেট সমর্থকরাও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রিয় এই ক্রিকেটারকে প্রশংসায় ভাসাচ্ছেন।

এক হাত দিয়ে তামিমের ব্যাটিং করা পোস্ট ফেসবুকে শেয়ার করছেন সবাই। ভাসাচ্ছেন বিভিন্ন বন্দনায়। কেউ লিখেছেন, ‘তামিমের মত দেশপ্রেমিক ক্রিকেটার থাকলে একদিন বাংলাদেশের ঘরেও আসবে বিশ্বকাপ।’

আবার কেউ হয়তো লিখছেন- ‘দেশপ্রেমের বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন তামিম।’ কারও কারও মন্তব্য এমন- ‘তামিমের এই নিবেদন থেকে তরুণদের ও দলের অন্যদেরও শিক্ষা ও সাহস নেয়া উচিত।’

আবার ফেসবুকে অনেকে তামিমের ছবি নিজের প্রোফাইলে দিয়েছেন। লিখেছেন, ‘স্যালুট তামিম তোমায়।’ আবার কেউ বলছেন, ‘তামিমের জন্যই একটা শক্তিশালী স্কোর হয়েছে বাংলাদেশের।’

গতকাল শনিবার এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শুরুতে চোট পেয়ে মাঠের বাইরে যান তামিম। এরপর শুরুর দিকে ২ উইকেট হারিয়ে অনেকটা দিশেহারা হয়ে পড়ে বাংলাদেশ। ধাক্কা সামলে নেন মিথুন-মুশফিক। মিথুনের উইকেট যাওয়ার পর আবার বিপর্যয় নেমে আসে বাংলাদেশ শিবিরে। মুশফিক একপ্রান্ত থেকে দলকে টেনে নিয়ে যাচ্ছিলেন। কিন্তু তাকে কেউই তেমন সঙ্গ দিতে পারছিলো না।

মুস্তাফিজের আউট হওয়ার পর মনে হচ্ছিলো ২২৯ রানে বাংলাদেশের স্কোর থেমে যাবে। তখনই দলের কথা ভেবে একটু আগে হাসপাতাল থেকে ফেরা তামিম মাঠে নামে ‘এক হাতের ব্যাটসম্যান’ হয়ে।

শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশের স্কোর দাঁড়ায় ২৬১ রানে। যেখানে রান তো দূরে তামিম খেলেছেন শুধু একটি বল। বাকি ৩২ রানের পুরোটাই একপ্রান্তে দাঁড়িয়ে চার-ছক্কায় তুলেছেন মুশফিক।

follow and like us:
0

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
শাহিন আইটির একটি অঙ্গ-প্রতিষ্ঠান