আওয়ামীলীগ সরকারকে ধংশ করার জন্য ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি- নজরুল ইসলাম হিরু বীরপ্রতিক

লক্ষন বর্মন, নরসিংদী প্রতিদিন, বৃহস্পতিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮: অবশেষে স্বপ্নপূরণ হয়েছে নরসিংদীবাসীর। দীর্ঘ দিনের দাবীর প্রেক্ষিতে নরসিংদী রেল স্টেশনে যােগ হয়েছে আরো ৩টি আন্তঃনগর ট্রেন। ঢাকা-নােয়াখালী ও ঢাকা-সিলেটের রুটে চলাচলকারী আন্তঃনগর উপকূল, উপবন ও কালনী এক্সপ্রেস ট্রেনের নিয়মিত যাত্রা বিরতির নির্দেশ দিয়েছে রেল মন্ত্রনালয়। আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনটি যাত্রাবিরতির মাধ্যমে নিয়মিত যাত্রাবিরতির আনুষ্ঠানিক উদ্বােধন করেন পানি সম্পদ মন্ত্রনালয়ের প্রতি মন্ত্রী লেঃ কর্ণেল (অব) নজরুল ইসলাম হিরু (বীরপ্রতিক) এমপি।
এই সময় তিনি বলেন, বহু প্রচেষ্টায় নরসিংদীতে তিনটি আন্তঃনগর ট্রেন যাত্রা বিরতির কারণে যাত্রী সাধারনের কিছুটা কষ্ট লাগব হল। এরই মাধ্যমে নরসিংদী রেল স্টেশন উন্নয়নের ছোঁয়া লাগল। আগামীতে এই রেল স্টেশনকে আরো আধুনিকায় ও একটি দৃষ্টি নন্দিত স্টেশন হিসেবে আবৃতকরণ হবে।
তিনি আরো বলেন, বর্তমান শেখ হাসিনা সরকার দেশের প্রতিটা স্থানে উন্নয়ানের ছোঁয়া লেগেছে। আগামীতে তা অসমাপ্ত কাজ গুলো সমাপ্ত করবে। এই জন্য এই শেখ হাসিনা সরকার বার বার দরকার। তাই আগামী জাতীয় দশম নির্বাচনে নৌকাকে নির্বাচিত করুন।
নজরুল ইসমাল হিরু আরো বলেন, আওয়ামীলীগ সরকারকে ধংশ করার জন্য ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি। তাই তৃনমূল নেতাদেরকে সজাগ থাকতে বলেছেন। তৃনমূল নেতাই একটা দলের বড় হাতিয়ার। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে তৃনমূলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবান জানান।

নরসিংদী জেলা প্রশাসক সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নরসিংদী ৩ আসনের সংসদ সদস্য ও রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য সিরাজুল ইসলাম মোল্লা, নরসিংদীর পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন, বাংলাদেশ রেলওয়ে সংস্কার প্রকল্প এর প্রকল্প পরিচালক মো: মিয়া জাহান, বিভাগীয় ব্যানিজ্যিক কর্মকর্তা (ঢাকা) মো: শফিকুর রহমান, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য এবিএম রিয়াজুল কবির কাউছার, পৌর মেয়র কামরুজ্জামান কামরুল প্রমুখ।
নরসিংদী ৩ আসনের সংসদ সদস্য ও রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য সিরাজুল ইসলাম মোল্লা বলেন, আমি এমপি হিসেবে শপথ নেওয়ার পর থেকেই নরসিংদীতে আন্তনগর ট্রেন যাত্রা বিরতির জন্য কাজ করেছি। ইতিমধ্যে আমি রেলওয়ে মন্ত্রনালয়ের ৫০ টি সভায় অংশ গ্রহন করে নরসিংদীর ট্রেন যাত্রা বিরতির কথা উপস্থাপন করেছি।
তিনি আরো বলেন, আন্তঃনগর উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনটি সর্ব প্রথম ১৯৮৫ সালে ঢাকা-নোয়াখালি রুটে নিয়মিত যাতায়াত শুরু করে। দীর্ঘ ৩৩ বছর পর আজ নরসিংদীতে এ ট্রেনটি যাত্রাবিরতি হল।
তিনি আরো বলেন, আমার পূর্বে নরসিংদীতে অনেক বড় বড় মন্ত্রী ছিলেন তাঁরাও ব্যার্থ হয়েছেন। আমি কথা দিচ্ছি নরসিংদীবাসির কষ্ঠ লাগব করার জন্য আরো আন্তঃনগর ট্রেন যাত্রা বিরতির জন্য কাজ করব।
নরসিংদীর পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, আমরা প্রতিটি জেলায় কাজ করার মাধ্যমে আপনারদের সাথে মেলামেশা। আমরা আজ এই জেলায় আছি কাল অন্য জেলায় চলে যাব কিন্তু আপনাদের নরসিংদীতে যে কৃতিসন্তান রয়েছে তাদের অবদানের জন্য আজ সুফল পেলেন। লে: কর্ণেল নজরুল ইসলাম হিরু ও সিরাজুল ইসলাম মোল্লাকে নরসিংদীবাসি মনে রাখবে যোগযোগ ধরে।
পৌর মেয়র কামরুজ্জামান কামরুল বলেন, রাজধানী ঢাকার পাশ্ববর্তী জেলা নরসিংদী। শিল্প, বাণিজ্য, কৃষির জন্য খ্যাত এ জেলা । টঙ্গী-ভৈরব দ্বৈত লাইন দিয়ে ট্রেন চলাচল শুরু হওয়ায় কানা রকম ক্রসিং ছাড়াই ঢাকা থেকে টঙ্গী পর্যন্ত ট্রেন চলাচল করায় যাত্রার সময় কমে এসেছে। ফলে নরসিংদীর আরশিনগর রেল ক্রসিংয়ে শহরের চলাচল যাত্রীদের দুর্ভােগ ও বিড়ম্বনা নিত্যদিনের সঙ্গী। তাই আমি মনে করি আরশিনগরে একটা ফ্রাইওভার ব্রিজ দরকার।
অনুষ্ঠানের সভাপতি নরসিংদী জেলা প্রশাসক সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন বলেন, আন্তঃনগর উপকূল, উপবন ও কালনী এক্সপ্রেস ট্রেনের নিয়মিত যাত্রা বিরতির মাধ্যমে নরসিংদীতে রেলপথ ভ্রমণ আরও জনপ্রিয়র পাশাপাশি বাড়বে রেলওয়ের আয়। আপনারা জানেন বর্তমান সরকার সারা বাংলাদেশে উন্নায়নকে ধরে রাখার জন্য কাজ করছে প্রতিনিয়ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *