পলাশে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীদের দেহ ব্যবসায় বাধ্য করতেন ছাত্রলীগ নেতা!

মো: হৃদয় খান,নরসিংদী প্রতিদিন: নরসিংদীর পলাশে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীদের দিয়ে দেহ ব্যবসা করানোর অভিযোগে এক ছাত্রলীগ নেতাসহ ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। শুক্রবার(১২ অক্টোবর) রাতে ভুক্তভোগী এক কিশোরী থানায় অভিযোগ দিলে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- ঘোড়াশাল পৌর ছাত্রলীগের উপ-ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক কাউছার হামিদ, রোকেয়া বেগম ও তার স্বামী সাব্বির হোসেন। এ ঘটনায় পুলিশ আটকদের পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠিয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবৎ ঘোড়াশাল পৌর এলাকায় বিভিন্ন অসহায় কিশোরীদের কাজের কথা বলে তাদের বিভিন্ন কায়দায় ব্ল্যাকমেইল করে দেহ ব্যবসায় বাধ্য করে আসছিলো তারা। তাদের কথামতো দেহ ব্যবসায় জড়িত না হলে তারা বিভিন্ন সময় কিশোরীদের মারধর ও অশ্লীল ভিডিও ধারণ করে নানাভাবে হয়রানি করতো।

এরই ধারবাহিকতায় সম্প্রতি এক কিশোরীকে চাকরি দেয়ার কথা বলে ঘরে বন্দি করে দেহ ব্যবসা করার কথা বলেন ছাত্রলীগ নেতা কাউছার ও তার সহযোগীরা। দেহ ব্যবসায় রাজি না হলে তারা ওই কিশোরীকে মারধর করেন। পরে তার চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে আসলে তারা পালিয়ে যান। এ ঘটনায় ওই কিশোরী থানায় মামলা দিলে পুলিশ গ্রেফতার করে।

পলাশ থানা পুলিশের ওসি মকবুল হোসেন মোল্লা জানায়, গ্রেফতারকৃত কাউছার বিভিন্ন সময় এলাকার অসহায় মেয়েদের ভয়-ভীতি দেখিয়ে অসামাজিক কাজে জড়িত হতে বাধ্য করত। কাউছারের মোবাইল ফোনে একাধিক নারী-পুরুষের অসামাজিক কাজের ছবি এবং ভিডিও পাওয়া গেছে।
– নিউজ সময়

Be the first to comment on "পলাশে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীদের দেহ ব্যবসায় বাধ্য করতেন ছাত্রলীগ নেতা!"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*