নরসিংদীতে চোখের জল ঝরালো ‘লাল জমিন’

শরীফ ইকবাল রাসেল, নরসিংদী:
মুক্তিযোদ্ধের চেতনায় তরুণ প্রজন্মকে উজ্জীবিত করতে শুন্যন রেপাটরী থিয়েটারের নাটক ‘লাল জমিন’ দেশ বিদেশের মঞ্চ পরিভ্রমনের ধারাবাহিকতায় নরসিংদীর শিশু একাডেমীতে শনিবার সন্ধায় মঞ্চস্ত হলো লাল জমিন নাটক খানি।
প্রখ্যাত রচয়িতা মান্নান হীরার রচনায় ও সুদীপ্ত চক্রবর্তীর নির্দেশনায় এবার নরসিংদীতে মঞ্চায়িত হলো লাল জমিন নাটক।
সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের পৃষ্ঠপোষকতায় নরসিংদী জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় মুক্তধারা নাট্য সম্প্রদায়ের সমন্বয়ে নরসিংদীর শিশু একাডেমীর হলরুমে নাটকটি মঞ্চস্ত হলো।

প্রখ্যাত নাট্যব্যক্তিত্ব মোমেনা চৌধুরীর একক নাটক লাল জমিন উপস্থাপনের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধ পূর্ববর্তী ও সময়কালীন বিষয়গুলোকে তুলে ধরা হয়েছে।
নরসিংদীতে লাল জমিন নাটক মঞ্চায়নের মাধ্যমে ১৭৫ তম মঞ্চায়ন বলে জানিয়েছেন মুক্তধারা কর্তৃপক্ষ।
লাল জমিন উপভোগ করে অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে নরসিংদী জেলা প্রশাসক সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন বলেন, এই নাটকের মাধ্যমে বর্তমান প্রজন্ম মুক্তিযোদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হবে। এছাড়া মুক্তিযোদ্ধকালীন নারীর অবদানকে এই নাটকের মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। মোমেনা চৌধুরীর একক অভিনয়ের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধে নারীর অবদান ফুটিয়ে তোলায় ধন্যবাদ জানান জেলা প্রশাসক।

এসময় আরো অনুভূতি ব্যক্ত করেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আব্দুল আউয়াল, স্থানীয় সরকার উপ পরিচালক ড. এটিএম মাহবুব উল করীম, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সুষমা সুলতানা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকির হাসান, নরসিংদী সরকারী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর মোহাম্মদ আলী, প্রফেসর গোলাম মোস্তাফা মিয়া, জেলা কালচারাল কর্মকর্তা শাহেলা খাতুন, মুক্তধারা নাট্য সম্প্রদায়ের সভাপতি জহিরুল হক মৃধা ও সাধারন সম্পাদক হাসান মাহমুদ সনেট।

অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে অতিথিরা বলেন, এই নাটকটি উপস্থাপনের সময় মুক্তিযুদ্ধের সময়কালীন পাশবিক নির্যাতনের দৃশ্যগুলো চোখের সামনে যেনো ভেসে উঠেছে। আর সেই করুণ আর্তনাত কানের কাছে এসে আওয়াজ তুলেছে প্রতিবাদের। এই নাটক দেখে দর্শকদের অনেকের চোখেই জল ঝড়তে দেখা গেছে। স্তম্ভিত হয়ে যায় সমস্ত হলরুম। যেনো এমন নাটক কখনো দেখেনি দর্শক। তাই এধরনের নাটক আজকের প্রজন্মের জন্য আরো বেশী করে মঞ্চায়ন প্রয়োজন।

লাল জমিন নাটকটি নরসিংদীতে ১৭৫ তম মঞ্চায়নের মাধ্যমে অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে নাট্যাভিনেত্রী মোমেনা চৌধরী বলেন, সর্ব প্রথমে দর্শকদের ধন্যবাদ। নরসিংদীর দর্শক কোনো প্রকার আওয়াজ ছাড়াই শান্তভাবে নাটকটি উপভোগ করেছেন। সেই দিক বিবেচনা করে হলরুমে প্রচুর দর্শকের উপস্থিতি দেখেও খুব খুশি।

Be the first to comment on "নরসিংদীতে চোখের জল ঝরালো ‘লাল জমিন’"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*