জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি সাইফুল, সম্পাদক ফরিদা

নরসিংদী প্রতিদিন-
মঙ্গলবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮:
জাতীয় প্রেসক্লাব ব্যবস্থাপনা কমিটির দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে সভাপতি পদে জয়লাভ করেছেন দৈনিক যুগান্তরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাইফুল আলম। অন্যদিকে, সাধারণ সম্পাদক হিসেবে জয়লাভ করেছেন একই প্যানেলের ফরিদা ইয়াসমিন।

নির্বাচনে সাইফুল আলম ৬২১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। আর ফরিদা ইয়াসমিন ৫৬৯ ভোট পেয়ে পুনরায় সাধারণ সম্পাদক পদে জয়লাভ করেন।

বিজয়ীরা আগামী ২ বছর জাতীয় প্রেসক্লাবের নেতৃত্ব দেবেন।

এর আগে সাইফুল আলম প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি আর ফরিদা ইয়াসমিন সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

মঙ্গলবার (১৮ ডিসেম্বর) সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ক্লাব প্রাঙ্গণে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

এবারের নির্বাচনে মোট ভোটার সংখ্যা ১২১২ জনের মধ্যে ১০৬৭ সদস্য ভোট দেন।

প্রতিকূল আবহাওয়া সত্ত্বেও জাতীয় প্রেসক্লাবের নবীন-প্রবীণ সদস্যরা ভোটকেন্দ্রে আসেন। উৎসবমুখর পরিবেশে দিনভর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

এবারের নির্বাচনে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ কার্যনির্বাহী পরিষদের ১৭টি পদে ৪৪ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। ভোটার ১ হাজার ২১২ জন। নির্বাচনে ক্লাবের বর্তমান সিনিয়র সহসভাপতি সাইফুল আলমের নেতৃত্বে সাইফুল-ফরিদা এবং শওকত মাহমুদের নেতৃত্বে শওকত-ইলিয়াস নামে দুটি পূর্ণাঙ্গ প্যানেল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

নির্বাচনে বিজয়ী অন্যরা হলেন- সিনিয়র সহসভাপতি মো. ওমর ফারুক (৪৪২) ও সহসভাপতি আজিজুল ইসলাম ভূঁইয়া (৫৫৪), দুটি যুগ্ম সম্পাদক পদে শাহেদ চৌধুরী (৫৯৯) ও মাইনুল আলম (৫৫৪)এবং কোষাধ্যক্ষ পদে শ্যামল দত্ত (৫৯৩)।

এ ছাড়া ১০টি সদস্যপদে বিজয়ীরা হলেন- কুদ্দুস আফ্রাদ (৫১৫), শামসুদ্দিন আহমেদ চারু (৫০৭), রেজোয়ানুল হক রাজা (৪৮৪), শাহনাজ বেগম (৪৬২), মো.সানাউল হক (৪৪২), কল্যাণ সাহা (৪৩৯), জাহিদুজ্জামান ফারুক (৪২৯), সৈয়দ আবদাল আহমেদ (৪১৭),বখতিয়ার রানা (৪০১) ও হাসান আরেফীন (৩৯১)। এর মধ্যে মো. সানাউল হক, সৈয়দ আবদাল আহমদ ও বখতিয়ার রাণা বিএনপিপন্থি প্যানেল থেকে এবং সরকার সমর্থক জাহিদুজ্জামান ফারুক স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বিজয়ী হয়েছেন।

এছাড়াও প্যানেলের বাইরে ১০ জন বিভিন্ন পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটের(পিআইবি) মহাপরিচালক মোহাম্মদ শাহআলমগীরসহ ৫ সদস্যের নির্বাচন কমিটি জাতীয় প্রেসক্লাব ব্যবস্থাপনা কমিটির কর্মকর্তা ও সদস্যপদে নির্বাচন পরিচালনার জন্য দায়িত্বে নিয়োজিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *