| ২২শে মে, ২০১৯ ইং | ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৬ই রমযান, ১৪৪০ হিজরী | বুধবার

গোপালদী বাজা‌রের ব্যবসায়ীদের স্বা‌র্থে নদী খনন অতি জরুরী

আরিফুল ইসলাম | নরসিংদী প্রতিদিন-
বুধবার, ১৩ মার্চ ২০১৯:
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার গোপালাদী বাজা‌রে পাশ দি‌য়ে ব‌য়ে চলা হা‌ড়ি ধোঁয়া নদী‌টির নাব্যতা ফি‌রে পে‌তে এবং গোপালদী বাজা‌রের ব্যবসা বা‌ণি‌জ্যের স্বা‌র্থে নদী‌টি খনন করা অত্যান্ত জরুরী বলে মনে করছেন স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। মেঘনা নদীর থে‌কে শাখা বে‌য়ে ব‌য়ে আসা নদী‌টিতে নাব্যতার কার‌নে নৌকা চলাচল কর‌তে পার‌ছে না এত ভোগান্তীতে পরছে চরাঞ্চলের ব্যবসায়ী।

ব্যবসায়ীরা নরসিংদী প্রতিদিনকে বলেছেন, অবৈধ দখলদার ও আশপা‌শের কাঁদা মা‌টির কার‌নে নদী‌টি‌তে পর্যাপ্ত প‌রিমা‌নে পা‌নি থা‌কে না পণ্যবাহী নৌকা চলাচলে বিঘ্ন গঠছে। এ শাখা নদী দিয়ে এক সম‌য়ে সব ধর‌নের পণ্য সরাস‌রি গোপালদী বাজার হতো। কিন্তু এখন নদী‌তে পা‌নি না থাকায় ঢাকা, ঢাকা-বন্দর থে‌কে কোন মালামাল নৌকা যো‌গে গোপালদী বাজা‌রে আনা সম্ভব হচ্ছে না, ফ‌লে ট্রাক কিংবা অন্যান যানবাহন দি‌য়ে মালামাল বহনের খরচ বে‌শি হ‌য়ে যায়, যার ফ‌লে ব্যবসায়ীরা দ্রব্য মূ‌ল্যের দাম গ্রাহক‌দের কাছ থে‌কে বা‌ড়ি‌য়ে নেওয়া হচ্ছে। ফ‌লে ক্রেতারা গোপালদী বাজা‌রে না এসে মাধবদী অথবা আড়াইহাজা‌রে চ‌লে যায়।

স্থানীয় কৃষকরা জানান, মেঘনার শাখা নদী‌টি‌তে আজ পা‌নি না থাকার কার‌নে আশপাশের এলাকাগু‌লো‌তে সে‌চের কা‌জে জ‌ন্যে পাম্প/টিউবওয়েল ব্যবহার কর‌তে হয়, যার ফ‌লে কৃষ‌কের উৎপাদন খরচ বে‌ড়ে যাচ্ছে। তাই গোপালদী বাজা‌রের পাশ দি‌য়ে ব‌য়ে যাওয়া নদী‌টির অ‌বৈধ দখল উচ্ছেদ ও নাব্যতা ফি‌রি‌য়ে আনার জ‌ন্যে খনন কাজ করা খুবই জরুরী হ‌য়ে প‌ড়ে‌ছে।
স্থানীয় প্রশাসন ও স্থানীয় সরকার প্র‌তি‌নি‌ধির কা‌ছে নদী‌টি রক্ষায় যথাযথ পদ‌ক্ষেপ গ্রহ‌ণের জোর দা‌বি জা‌নি‌য়ে‌ছেন এ বিষ‌য়ে এলাকাবা‌সি। বিষয়‌টি যেন যথাযথ কর্তৃপ‌ক্ষের নজরে আসে।

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *