| ১৯শে মার্চ, ২০১৯ ইং | ৫ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১১ই রজব, ১৪৪০ হিজরী | মঙ্গলবার

নরসিংদীতে স্টুডেন্ট কেবিনেটে নির্বাচন সম্পন্ন

খন্দকার শাহিন | নরসিংদী প্রতিদিন-
বৃহস্পতিবার, ১৪ মার্চ ২০১৯:
নরসিংদীতে ব্যাপকে উৎসাহ উদ্দীপনা ও আনন্দঘন পরিবেশের মধ্য দিয়ে মাধ্যমিক স্তরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনুষ্ঠিত হয়েছে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন। এতে জাতীয় নির্বাচনের আদলে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন শ্রেণির ভোটারদের জন্য পৃথক পৃথক বুথ তৈরি করে ভোট নিয়েছেন প্রিজাইডিং কর্মকর্তা। মাধ্যমিক বিদ্যালয়সহ দাখিল মাদ্রাসার স্টুডেন্টদের অংশ গ্রহনের মাধ্যমে এ ননির্বাচনে সকাল ৯ টায় শুরু হয়ে দুপুর ২টায় ভোট গ্রহন শেষ হয়। ভোট কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে, সদর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মাধবদী এস.পি (সতী প্রসন্ন) ইনস্টিটিউশন এর ভোট কেন্দ্রে শিক্ষার্থীদের লম্বা লাইন।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার অত্র স্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্র ইলতিহার আল শাহাদ জানায়, ৬ষ্ঠ শ্রেণী থেকে দশম শ্রেণীর মোট ১৪জন প্রার্থী এ নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। এদের মধ্য থেকে ৮ জন প্রার্থী নির্বাচিত হবে। এ স্কুলে মোট ভোটারের সংখ্যা ২৫৩৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১১১৯জন এবং মহিলা ভোটার ১৪১৭জন। সকাল থেকে সুশৃঙ্খলভাবে এ প্রতিষ্ঠানে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এসময় প্রতিষ্ঠানের পরিচালক আল-আমিন সরকার, প্রধান শিক্ষক বাবু কিরণ কুমার দেবনাথ নির্বাচন কর্মকর্তাদের সাথে নিয়ে কেন্দ্রের পরিবেশ ঘুরে ঘুরে দেখেন। মাধবদী ও নরসিংদীর অন্যান্য মাধ্যমিক স্কুল ও মাদ্রাসাগুলোতেও একই চিত্র দেখা যায়।

নরসিংদী জেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ সৈয়দ উদ্দিন নরসিংদী প্রতিদিনকে জানান, নরসিংদী সদরে মাধ্যমিক,নিম্ন মাধ্যমিক ও দাখিল মাদ্রাসা সহ ৩৩০ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্বঃতস্ফূর্ত ভাবে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ ভোটে নির্বাচিত হয়ে প্রতিষ্ঠানের ৮টি প্রধান দায়িত্বে আটজন নির্বাচিত প্রতিনিধি দায়িত্ব পালন করবেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, এবার ১৬ হাজার ২৪৫টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এবং ছয় হাজার ৭১৬ দাখিল মাদরাসায় এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মাধ্যমিক পর্যায়ে এক লাখ ২৯ হাজার ৯৬০টি পদের জন্য দুই লাখ ৩১ হাজার ১২৬ এবং মাদরাসা পর্যায়ে ৫৩ হাজার ৭২৮টি পদের জন্য ৯৩ হাজার ৭১০ শিক্ষার্থী এ নির্বাচনে অংশ নেয়।

শিক্ষার্থীরা ভোটের মাধ্যমে বিজয়ী হয়ে প্রতিষ্ঠানের পরিবেশ সংরক্ষণ- বিদ্যালয়, আঙিনা ও টয়লেট পরিষ্কার এবং বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, পুস্তক ও শিখন সামগ্রী, স্বাস্থ্য, ক্রীড়া, সংস্কৃতি ও সহপাঠ কার্যক্রম, পানিসম্পদ, বৃক্ষ রোপণ ও বাগান তৈরি ইত্যাদি দিবস ও অনুষ্ঠান উদযাপন, অভ্যর্থনা ও আপ্যায়ন এবং আইসিটি এই ৮টি প্রধান দায়িত্বে আটজন নির্বাচিত প্রতিনিধি দায়িত্ব পালন করবেন।

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *