| ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৯শে মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী | বৃহস্পতিবার

জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে বিএনপিকেও এগিয়ে আসার আহ্বান নাসিমের

নিউজ ডেস্ক | নরসিংদী প্রতিদিন-
মঙ্গলবার,৩০ এপ্রিল ২০১৯:
বিএনপি থেকে নির্বাচিতরা সংসদে আসায় তাদেরকে ধন্যবাদ জানিয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, ‘আমরা ধন্যবাদ জানাই বিএনপির বন্ধুদের অনেক দেরিতে হলেও আপনারা পার্লামেন্টে যোগদান করেছেন, আমরা খুশি হয়েছি। আমরা আহ্বান করবো আপনারাও এগিয়ে আসুন শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে, জঙ্গিবাদ সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে।’

মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস বিরুদ্ধে ‘শান্তির সমাবেশ’ এ সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। কেন্দ্রীয় ১৪ দল শান্তির সমাবেশ আয়োজন করে।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘আমরা চিরদিন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জঙ্গি-সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে লড়াই করে আসছি। বারবার আমরা বিজয়ী হয়েছি। এবারও আমরা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ইনশাআল্লাহ বিজয়ী হবো দেশকে শান্তির পথে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে। জঙ্গিদের কোনো ধর্ম নেই, দেশ নেই। যেকোনও মূল্যে দেশ থেকে জঙ্গিবাদ নির্মূল করা হবে। আমার অহিংস বাংলাদেশ দেখতে চাই। অহিংস বিশ্বাস দেখতে চাই।’

আওয়ামী লীগের আরেক সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ছাত্র সমাজ, সাংবাদিক ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ একসাথে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে একসাথে রুখে দাঁড়াতে হবে। যেভাবে পাকিস্তান আমলে সাম্প্রদায়িক হামলা এক সাথে রুখে দেয়া হয়েছিল।’

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আবদুল মতিন খসরু বলেন, ‘বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ জঙ্গি-সন্ত্রাসী নয়। আমাদের চোখের অগোচরে একটি গোষ্ঠী জঙ্গি-সন্ত্রাস হিসেবে গোড়ে উঠেছে। জঙ্গিবাদ শুধু বাংলাদেশের সমস্যা নয়, এটা বৈশ্বিক সমস্যা। বৈশ্বিক ভাবেই এ সমস্যার মোকাবেলা করতে হবে। দল-মত নির্বিশেষে এই সমস্যা মোকাবেলায় কাজ করতে হবে। আমাদের দেশের শিক্ষার্থীদের একটি গোষ্ঠী মগজ ধোলাই করে জঙ্গিবাদে ধাবিত করছে। এই মগজ ধোলাইকারীদের খুঁজে বের করতে হবে। আমাদের শিক্ষার্থীদের মানবিক গুণাবলির শিক্ষা দিতে হবে।’

জঙ্গিবাদ মোকাবেলায় প্রত্যেককে নিজ-নিজ অবস্থান থেকে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানিয়ে বিশিষ্ট লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, জঙ্গিবাদ সন্ত্রাসবাদ ঐ সকল দেশে দেখা দিয়েছে যেগুলো গণতান্ত্রিক ও অসাম্প্রদায়িক। জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাসবাদ শুধু মাত্র সরকার, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, প্রশাসন দিয়ে নির্মূল করা যাবে না। সকল নাগরিককে দল-মত, ধর্ম-বর্ণ উর্ধ্বে উঠে এ সমস্যার মোকাবেলা করতে হবে।’

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *