| ২৩শে আগস্ট, ২০১৯ ইং | ৮ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২১শে জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী | শুক্রবার

নিখোঁজের ১১ দিন পর তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার। নরসিংদী প্রতিদিন-
শনিবার ১৫ জুন ২০১৯:
নরসিংদীতে নিখোঁজের ১১ দিন পর সিয়াম (৮) নামের তৃতীয় শ্রেণীর এক স্কুলছাত্রের মরদেহ বরিশাল থেকে উদ্ধার করেছে নরসিংদী জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। শুক্রবার (১৪ জুন) বরিশালের হিজলা উপজেলার আবুপুর দুর্গম চরাঞ্চল এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়। সিয়াম শিবপুর উপজেলার কারারচর (বিসিক শিল্পনগরী) এলাকার হাফেজ নূর উদ্দিনের ছেলে। সে পলাশ উপজেলার দড়িচর এলাকায় আল সাফা কিন্ডারগার্টেনের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্র। এ ঘটনায় নিহত শিশুর চাচাতো মামা সাফায়াত হোসেন নামের একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও নিহত সিয়ামের পরিবার জানান, গত ২ জুন সন্ধ্যায় বাড়ির পাশের সড়ক থেকে নিখোঁজ হয় সিয়াম। ওই রাতেই অপহরণকারীরা তাঁর মা লাকি আক্তারের মোবাইলে ফোন করে ৫০ হাজার টাকা মুক্তিপণ চায়। কিন্তু অপহরণকারীরা কোনো ব্যাংকের একাউন্ট নম্বর কিংবা বিকাশ নম্বর না দেওয়ায় মুক্তিপণের টাকা পাঠানো সম্ভব হয়নি। এ ঘটনায় সিয়ামের বাবা শিবপুর মডেল থানায় একটি সাধারন ডায়েরি দায়ের করেন ও পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দেন।
এরই প্রেক্ষিতে পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন আহমেদ তাৎক্ষণিক বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে জেলা গোয়েন্দা পুলিশকে তদন্তভার দেন। এরইমধ্যে ঘটনার দুদিন পর অপহরণকারীরা বিকাশ নম্বর দিলে ৩০ হাজার টাকা মুক্তিপণ পাঠায়। এ ঘটনায় জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) রুপন কুমার সরকার তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় গত ১৩ জুন সিয়ামের চাচাতো মামা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার গোয়ালিনগর এলাকার হাবিব মিয়ার ছেলে সাফায়াত হোসেনকে রাজধানীর সায়েদাবাদ এলাকা থেকে আটক করে।
পরে তাঁর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে শুক্রবার বরিশালের হিজলা উপজেলার আবুপুর দুর্গম চরাঞ্চল এলাকায় আড়িয়াল খাঁ নদী থেকে সিয়ামের লাশ উদ্ধার করা হয়।
এব্যাপারে এসআই রুপন কুমার সরকার বলেন, স্কুলছাত্র শিশু সিয়ামের চাচাতো মামা সাফায়াত হোসেন লোভের বশ:বর্তী হয়ে অপহরণ করে। এরমধ্যে সে তাঁর পরিবারের কাছ থেকে ৩০ হাজার টাকা মুক্তিপণ আদায় করে। পরে শিশু সিয়ামকে নিয়ে সাফায়াত গত ৯ জুন সদরঘাট থেকে মাদারীপুর কালকিনি গামী দ্বীপরাজ-৪ নামের একটি লঞ্চযোগে বরিশাল যাওয়ার পথে লঞ্চ থেকে ধাক্কা দিয়ে নদীতে ফেলে দেয়।
এ ঘটনায় সাফায়েতকে আটক করার পর তাঁর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বরিশালের হিজলা উপজেলার দুর্গম চরাঞ্চল আবুপুর এলাকা থেকে সিয়ামের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। পরে নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্যে বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *