শুক্রবার | ১০ই জুলাই, ২০২০ ইং |

মাধবদী পৌর মেয়রের হস্তক্ষেপে হারানো বসত ভিটা ফিরে পেল ৭০ বছরের বৃদ্ধা

নিজস্ব প্রতিবেদক | নরসিংদী প্রতিদিন-
শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯: গত ১৩ জু্লাই ‘মাধবদীতে বিধবার বসতবাড়ী দখলের পায়তারা’ এই শিরোনামে নরসিংদী প্রতিদিন এ খবর প্রকাশ হওয়ার পর মাধবদী পৌরসভার মেয়র হাজী মোশারফ হোসেন প্রধান মনিক এর হস্তক্ষেপে হারানো বসত ভিটা ফিরে পেলো পৌর শহরের বিরামপুর এলাকার স্বামী ও সন্তানহারা অসহায় ৭০ বছরের এক বৃদ্ধা।

জানাযায়, মৃত. অজিত কুমার দাসের স্ত্রী সাধনা রানী দাসের কাছ থেকে প্রতারণার মাধ্যমে বসত বাড়ির ১৩ শতাংশ জমি ছেলের বউ ও বউয়ের আত্মীয়-স্বজন খারিজ করিয়ে দেওয়ার কথা বলে জমির পাওয়ার নিয়ে রেজিষ্ট্রি বায়না করে। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় ১ কোটি টাকা। এ ঘটনাটি নিয়ে নরসিংদী প্রতিদিন এ সংবাদ প্রকাশিত হলে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। স্থানীয় লোকজন মাধবদী পৌরমেয়র মোশাররফ হোসেন প্রধান মানিকের কাছে সুষ্ঠ বিচার দাবী করেন। তারই প্রেক্ষিতে গত ১৮ জুলাই কালিগঞ্জ থেকে অভিযুক্ত ব্যাক্তি শিবু চন্দ্র শাখারী(৪০), রত্না রানী শাখারী(৩৫), চন্দন চন্দ্র দাস(৩৫), পুতুল রানী শাখারী(৩৫), রত্না রানী দাসকে খুজে বের করে মেয়রের কাছে নিয়ে আসা হয়। পরে মেয়র ও স্থানীয় লোকজনের সহযোগীতায় বৃদ্ধা সাধনা রানীর জমি উদ্ধার করে পুনরায় তার নামে হস্তান্তর করে দেওয়া হয়। সেজন্য মাধবদী পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের সর্বস্তরের জনগন পৌরবাসি মেয়রের প্রশংসা করেন।
মাধবদী পৌরসভার মেয়র হাজী মোশাররফ হোসেন প্রধান মানিক নরসিংদী প্রতিদিনকে বলেন, মাধবদী বিরামপুর এলাকার স্বামী ও সন্তানহারা অসহায় ৭০ বছরের বৃদ্ধা থেকে প্রতারণা করে জমি হাতিয়ে নিয়েছে এমন একটি খবর স্থানীয় পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হলে আমি ও স্থানীয় লোকজনের সহযোগীতায় বৃদ্ধা সাধনা রানীর জমি উদ্ধার করে পুনরায় তার নামে হস্তান্তর করে দেওয়া হয়। স্বামী ও সন্তানহারা অসহায় বৃদ্ধার জমি ফিরিয়ে দিতে পেরেছি এর চেয়ে আনন্দ আর কি হতে পারে।

follow and like us:
0

Leave a Reply

Your email address will not be published.