বৃহস্পতিবার | ৪ঠা জুন, ২০২০ ইং |

নরসিংদীতে দেশ সেরা বেলাব বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ (ভিডিও সহ দেখুন)

নিজস্ব প্রতিবেদক | নরসিংদী প্রতিদিন-
রবিবার,৫ জানুয়ারী ২০২০:
বাংলাদেশের অন্যতম সৌন্দর্যময় পাঁচটি মসজিদের মধ্যে একটি বেলাব বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ। দেশ-বিদেশে নজর কেড়েছে মসজিদটির নন্দনশৈলি, অবকাঠামো আর কারুকার্যখচিত স্থাপত্য নিদর্শন।

স্থানীরা জানিয়েছেন, মসজিদটি প্রায় ৩০০ (তিনশত) বৎসর আগে প্রতিষ্ঠিত হয়। এ মসজিদটির প্রথম প্রতিষ্ঠাতা ও জমিদাতা ছিলেন বীরবাঘব গ্রামের মাহবুব ব্যাপারী। মসজিদটি যখন প্রথম নির্মিত হয়, তখনই এই মসজিদটি অত্র এলাকার অন্য মসজিদ থেকে ভিন্ন কাঠামো সবারই দৃষ্টি আকর্ষণ করে।

মসজিদটি প্রথম নির্মাণের সময় এর সাতটি গুম্বুজ ছিল। লোক মূখে শোনা যায় এই মসজিদের ভিতরে (প্রতিষ্ঠালগ্নের) অলৌকিকভাবে বা গায়েবীভাবে কুরআন তেলওয়াত শোনা যেত। ফলে এই মসজিদটি ফজিলতের মসজিদ হিসেবে পরিচিতি লাভ করে। মসজিদটি প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই জুম্মার নামাজে প্রচুর মুসল্লি হতো। যা মসজিদের ধারণ ক্ষমতার বাইরে চলে যেত। দিন দিন মুসল্লিদের সংখ্যা আরো বৃদ্ধি পেতে থাকে।

মসজিদটিতে জুম্মার মুসল্লিদের কথা বিবেচনা করে নানা হিতৈষীর হাত ধরেই এর উন্নয়ন কাজ চললেও সর্বশেষ নরসিংদী জেলার বিশিষ্ট শিল্পপতি শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবক থার্মেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল কাদির মোল্লা উদ্যোগে মসজিদটির বর্তমান অবকাঠামোটি নির্মিত হয়।

মসজিদ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, মসজিদটির ধারণ ক্ষমতা ৮ হাজার জন হলেও পবিত্র রমজান মাসে জুমাতুল বিদার জুম্মার নামাজে প্রায় ২০-২২ হাজার মুসল্লি হয়। এই উপজেলার বাহিরে ও পার্শ্ববর্তী কিশোরগঞ্জ জেলা ও ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকা হতে এই মসজিদে জুম্মার নামাজে মুসুল্লিরা আসেন। বর্তমান কাঠামোতে মসজিটির ধারণ ক্ষমতা বৃদ্ধির পাশাপাশি এর নির্মাণ শৈলী সকলকে মুগ্ধ করে।

বর্তমানে মসজিদটি নরসিংদী’র বেলাব উপজেলার একটি দর্শনীয় স্থান। ঢাকা থেকে বাসযোগে (বিআরটিসি, অন্যন্যা সুপার, যাতায়াত, হাওর বিলাশ অথবা সিলেট কিশোরগঞ্জ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার যে কোন বাসে) ঢাকা সিলেট মহা সড়কের মরজাল অথবা বারৈচা সাস্ট্যন্ডে নেমে সিএনজিযোগে বেলাব বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে যাওয়া য়ায়।

follow and like us:
0

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Leave a Reply

Your email address will not be published.