শুক্রবার | ৩রা জুলাই, ২০২০ ইং |

যা থাকতো নেইমারের বিলাসী পার্টিতে

স্পোর্টস ডেস্ক | নরসিংদী প্রতিদিন
-শুক্রবার-১৯ জুন ২০২০:
বর্তমান ফুটবল বিশ্বে দলবদলের বাজারে সবচেয়ে দামি ফুটবলার ব্রাজিলের নেইমার জুনিয়র। ২০১৭ সালে স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনা থেকে ফ্রেঞ্চ ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেইতে যোগ দেয়ার সময় তার ট্রান্সফার ফি ছিল ২২২ মিলিয়ন ইউরো। যা এখনও বিশ্ব রেকর্ড।

বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলার নেইমার সবসময় খরচও করেন দুই হাত প্রসারিত করে। বিশেষ করে পার্টি আয়োজনে তার জুরি নেই কোন। যেকোন উপলক্ষ্য পেলেই হলো, বিলাসী পার্টি আয়োজন করে বন্ধুবান্ধবদের আমন্ত্রণ জানাতে কোন ভুল করেন না নেইমার।

এই গত ফেব্রুয়ারিতেই নিজেই ২৮তম জন্মদিনে পিএসজির সতীর্থদের নিয়ে রমরমা এক পার্টি আয়োজন করেন নেইমার। যেখানে উপস্থিত ছিলেন মার্কো ভেরাত্তি, এডিনসন কাভানি, অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া, অ্যান্ডার হেরেরাসহ আরও অনেকে।

সেই পার্টিতে উপস্থিত থাকা হেরেরা জানালেন, কী কী থাকে নেইমারের এসব পার্টিতে। কাকতালীয় বিষয় হলো, পিএসজিতে যোগ দেয়ার পর থেকে প্রতিবছর নিজের জন্মদিনে ইনজুরিতে থাকেন নেইমার। ফলে মাঠের খেলা নিয়ে ভাবতে হয় না তাকে। তাই করতে পারেন বিলাসী পার্টি।

স্প্যানিশ সংবাদ মাধ্যম লা রেসিসটেনসিয়াকে হেরেইরা বলেছেন, ‘নেইমারের পার্টিতে কী হয় না আসলে? সে পুরো নাইটক্লাব ভাড়া নিয়েছিল জন্মদিনের পার্টি করতে। শুধু তাই নয়, বিবাহিত এবং অবিবাহিতদের জন্য ছিল আলাদা ব্যবস্থা। বিবাহিতরা ওপরের তলায় আর অবিবাহিতরা নিচের তলায়।’

নেইমারের এই বিবাহিত-অবিবাহিত বিভাজনে খানিক অসুবিধায়ই পড়তে হয়েছিল হেরেইরাকে। কেননা তিনি গিয়েছিলেন নিজের স্ত্রীকে নিয়ে এবং বিভাজন দেখে তার স্ত্রী তাকে একবারের জন্যও নিচে নামতে দেননি। এমনকি টয়লেট ব্যবহারের জন্যও নয়।

নিজের অসহায়ত্বের কথা জানিয়ে হেরেইরা বলেন, ‘আমি তো আমার স্ত্রীকে নিয়ে গেছিলাম সেই পার্টিতে। আর আমার স্ত্রী একবারের জন্যও আমাকে অবিবাহিতদের মাঝে যেতে দেয়নি। টয়লেট ব্যবহারের জন্যও নিচে নামতে পারিনি আমি।’

তবে নেইমারের এমন আয়োজন নিয়ে কোন প্রশ্ন নেই হেরেইরার। আমন্ত্রিতদের আনন্দ দেয়ার জন্যই যে এমন করেন তিনি, তা জানাতে ভোলেননি হেরেইরা, ‘সত্যি কথা বলতে, সবার সুবিধার কথা, আনন্দের বিষয়টা মাথায় রেখেই পার্টি আয়োজন করে নেইমার। আমি ওকে এজন্য অভিনন্দন জানাই।’

follow and like us:
0

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা