1. nahidprodhan143@gmail.com : নরসিংদী প্রতিদিন : নরসিংদী প্রতিদিন
  2. khandakarshahin@gmail.com : Breaking News : Breaking News
  3. laxman87barman@gmail.com : laxman barman : laxman barman
  4. shahinit.mail@gmail.com : narsingdi : নরসিংদী প্রতিদিন
  5. msprovat@gmail.com : ms provat : ms provat
  6. hsabbirhossain542@gmail.com : সাব্বির হোসেন : সাব্বির হোসেন
  7. subeditor@narsingdipratidin.com : Narsingdi Pratidin : Narsingdi Pratidin
মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ০৪:০৫ পূর্বাহ্ন

আবারও আলোচনায় হেফাজত ইসলাম

নিজস্ব প্রতিবেদক | নরসিংদী প্রতিদিন -
  • প্রকাশের তারিখ | রবিবার, ৪ এপ্রিল, ২০২১

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের যুগ্ম-মহাসচিব ও ঢাকা মহানগরের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মামুনুল হককে ঘিরে বিকেল থেকেই আলোচনার কেন্দ্র বিন্দু ছিল নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ। তবে এবার কোনা ধসাংত্মক তাণ্ডব নয়, বাংলার প্রাচীন রাজধানী সোনারগাঁয়ে ঘুরতে এসে নাজেহাল হলেন হেফাজত নেতা মামুনুল হক। নিজের বিবাহিত স্ত্রীর সঙ্গে থেকেও শুনতে হয়েছে নানা সমালোচনা। আর এর জন্য আইনগত ব্যবস্থা নেয়ারও হুঙ্কারও দিয়েছেন তিনি।

শনিবার (৩ এপ্রিল) বিকেলে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ যাদুঘর সংলগ্ন বিলাস বহুল রয়েল রিসোর্টে হেফাজত নেতা মামুনুল হক নারী নিয়ে অবস্থান করছেন এমন খবর ছড়িয়ে যায় চারদিকে। ধীরে ধীরে জড়ো হতে থাকে মামুনুল হক বিরোধী সাধারণ জনতা। এক পর্যায়ে রিসোর্টে ঢুকে তার রুম থেকে টেনে বের করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেন তারা। এসময় মামুনুল হক সেই নারীকে নিজের ২য় স্ত্রী বলে পরিচয় দিলেও উপস্থিত জনতা তা বিশ্বাস করেনি। এসময় স্থানীয় সাংবাদিক ও উৎসুক জনতা ফেসবুক লাইভে গেলে মুহুর্তেই চতুর্দিকে সংবাদ ছড়িয়ে যায়।

ঘটনার সময় ভাইরাল হওয়া ফেসবুক লাইভে দেখা যায়, বেশ কয়েকজন স্থানীয় জনতা মিলে হেফাজত নেতা মামুনুলকে অবরুদ্ধ করে রেখেছেন। এসময় তারা মামুনুল হককে একের পর এক প্রশ্ন করতে থাকেন। এক পর্যায়ে মামুনুল হক উত্তেজিত হয়ে তার পক্ষে সাফাই জবাব দিতে থাকেন। তবে স্থানীয়রা সেসব বিশ্বাস করছিলেন না।

ঘটনার পরপরেই ঘটনাস্থলে ছুটে আসে সোনারগাঁ থানা পুলিশ। এরপর একে একে উপস্থিত হন সোনারগাঁয়ের ইউএনও আতিকুল ইসলাম, জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোশাররফ হোসেন, সোনারগাঁ থানার ওসি (তদন্ত) তবিদুর রহমান।

সন্ধ্যার পর সোনারগাঁ থানার পুলিশে মামুনুল হককে নিয়ে থানার দিকে যেতে নিলে পথিমধ্যে হেফাজত কর্মীরা তাকে ছিনিয়ে নেয়। এরপরেই তারা রয়েল রিসোর্টে প্রবেশ করে তারা ব্যাপক ভাঙচুর শুরু করে। একপর্যায়ে মোগরাপাড়া চৌরাস্তায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে টায়ারে আগুন ধরিয়ে দেয়। প্রায় ৪০ মিনিট অবরুদ্ধ করে রাখে পুরো মহাসড়ক।

হেফাজতে ইসলাম নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সভাপতি মাওলানা ফেরদাউসুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, হুজুর বেড়াতে এসেছিলেন সোনারগাঁয়। কিন্তু স্থানীয় কিছু উশৃঙ্খল যুবক তাকে অবরুদ্ধ করে হেনস্থা করে। আমরা তাকে নিয়ে জামিয়া মাদ্রাসার দিকে ফিরছি।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সোনারগাঁ থানার ওসি (তদন্ত) তবিদুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, মামুনুল হককে থানায় নেয়ার সময় হেফাজত কর্মীরা তাকে নিয়ে গেছে। আমরা পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করছি।

এই পাতার আরও সংবাদ:-
টিম-নরসিংদী প্রতিদিন এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে শাহিন আইটি এর একটি প্রতিষ্ঠান-
Theme Customized BY WooHostBD