1. khandakarshahin@gmail.com : Breaking News : Breaking News
  2. laxman87barman@gmail.com : laxman barman : laxman barman
  3. shahinit.mail@gmail.com : narsingdi : নরসিংদী প্রতিদিন
  4. msprovat@gmail.com : ms provat : ms provat
  5. hsabbirhossain542@gmail.com : সাব্বির হোসেন : সাব্বির হোসেন
বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০১:৪০ পূর্বাহ্ন

নরসিংদীতে প্রভাবশালীদের ইন্দনে বিচার পাচ্ছে না ধর্ষিত নারীরা

ডেস্ক রিপোর্ট | নরসিংদী প্রতিদিন
  • প্রকাশের তারিখ | মঙ্গলবার, ২০ মার্চ, ২০১৮

সাইফুল ইসলাম রুদ্র, নরসিংদী প্রতিদিন,২০ মার্চ ২০১৮: নরসিংদী সদর, রায়পুরা, শিবপুর, বেলাব, মনোহরদী, পলাশ ও মাধবদী থানার ৭১টি ইউনিয়নে বিগত সময় প্রায় ২শতাধিক ধর্ষনের অভিযোগ পাওয়া যায়। নরসিংদীতে নারী ও শিশু ধর্ষণ মাত্রাতিরিক্ত হারে বেড়ে গেছে।

গত ৮ মাসে নরসিংদীতে ধর্ষণ মামলা হয়েছে শতাধিক। বিশেষজ্ঞ মহল এবং সাধারণ মানুষের একটাই প্রশ্ন, কেন এমনটা হচ্ছে? অপরাধ বিশেষজ্ঞদের অভিমত, সমাজ এক ধরনের পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যাওয়ার ফলে অস্থিরতা বিরাজ করছে। পশ্চিমা সংস্কৃতি ও বিশ্বায়ণের ক্ষতিকর প্রভাবের কারণে ধর্ষণ প্রবণতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। অবাধ তথ্য প্রবাহের দরুন ইন্টারনেট, ফেসবুক, টিভির বিভিন্ন চ্যানেলে যৌন উত্তেজনাপূর্ণ ছবি দেখে অনেকে লালসা চরিতার্থের পথ খুঁজে ফেরে। ইভটিজিংও এর দরুন হচ্ছে। অথচ দেশে এ সংক্রান্ত আইন যে নেই তা বলা যাবে না। এমনকি পার্শ্ববর্তী রাষ্ট্র ভারতের তুলনায় আমাদের দেশে আইন কঠোর।

নারী ও শিশু নির্যাতন সংক্রান্ত আইন ২০০০ সংশোধিত ২০০৩ এর ৯ (১) ধারায় বলা হয়েছে, যদি কোন পুরুষ কোন নারী বা শিশুকে ধর্ষণ করে তবে সে যাবজ্জীবন কারাদন্ডে দন্ডিত হবে। ৯(২) ধারায় আছে, ধর্ষণ বা পরবর্তী অন্যবিধ কার্যকলাপের ফলে ধর্ষিত নারী বা শিশুর মৃত্যুতে ঘটলে ধর্ষকের মৃত্যুদন্ড বা জাবজ্জীবন কারাদন্ড হবে। একই সাথে জরিমানার কথাও বলা হয়েছে। সর্বনিম্ন জরিমানা এক লাখ টাকা। ৯ (৩) ধারায় বলা আছে, যদি একাধিক ব্যক্তি দলবদ্ধভাবে কোন নারী বা শিশুকে ধর্ষণ করে এবং উক্ত ধর্ষণের ফলে কোন নারী বা শিশু মারা যায় তবে প্রত্যেকের জাবজ্জীবন কারাদন্ড বা মৃত্যুদন্ড এবং কমপক্ষে এক লাখ টাকা জরিমানা হবে। বেশ কিছু রায় ইতোমধ্যে আইন অনুযায়ী কার্যকর হয়েছে। তা সত্ত্বেও দুর্বৃত্তরা এ ধরনের অপকর্ম অব্যাহত রেখেছে। পত্র পত্রিকার মাধ্যমে যেসব নৃশংসতার খবর আসছে তা শুনলে শিউরে উঠতে হয়। সাত বৎসরের শিশুকে ধর্ষণ করা হয়েছে।

গত রোজায় ছোট্ট একটা মেয়েকে ইফতারের দাওয়াত দিয়ে পৌঢ় দু’ব্যক্তি ধর্ষণ করে। পত্রিকা সূত্রে জানা গেছে, ৬ মাস ধরে আটকে রেখে ভাতিজিকে ধর্ষণ করেছে চাচা। এসব খবর যখন শুনি তখন হতবাক হতে হয়। ভাবি, কোথায় বাস করছি আমরা। এর মূলে কি শিক্ষার অভাব, না অন্য কিছু? আমরা নিরাপত্তা দিতে পারছি না আমাদের নারীদের, শিশুদের।

সাম্প্রতিক বগুড়ার ধর্ষণ ঘটনা বলে দেয় নারীদের নিরাপত্তা দিতে আমরা কতটা ব্যর্থ। আর এসবের মূলে ক্ষমতা যে একটা বড় ফ্যাক্টর, ধর্ষণ পরবর্তী মা-মেয়ের মাথা মুড়িয়ে দেওয়াই তার প্রমাণ। এই নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা যখন বিদ্যমান তখনই তিন বছরের এক শিশুকে ধর্ষণ করে হত্যা করেছে এক নরপশু। কোন ভয়ই তাদের ভীত করছে না। জানা গেছে, প্রায় ২৯ হাজার ধর্ষণ মামলা বিচারাধীন রয়েছে। এর মধ্যে ৬ হাজার মামলার রায় হয়েছে। বাকী মামলাগুলোর নিস্পত্তি হচ্ছে না। এই নিস্পত্তি না হওয়ার মূলে অনেকগুলো কারণ রয়েছে। যেমন ধর্ষণের শিকার নারী ও শিশু সঠিক বিচার পাচ্ছে না। প্রয়োজনীয় পুলিশী সহায়তা না পাওয়ায় ভিকটিমের মধ্যে নিরাপত্তাহীনতার আতঙ্ক তাড়া করছে।

এতে আসামিরা সাহস পেয়ে আরও উৎসাহী হয়ে উঠছে। কত ঘটনা যে বিচারহীনতা ও নিরাপত্তার অভাবে ধামাচাপা পড়ে যায় তা বলার অপেক্ষা রাখে না। এ প্রসঙ্গে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনার বলেন- বর্তমানে দেশের নারী পুরুষের সংখ্যা প্রায় সমান। ক্ষমতায়নের দিক থেকে নারীরা অনেক এগিয়ে যাচ্ছে। সমাজে সর্বক্ষেত্রে তাদের সফল পদচারণা। কিন্তু তা স্বত্ত্বেও তারা পুরুষদের দ্বারা নির্যাতিত হচ্ছে। এ অবস্থা উদ্বেগজনক। কড়া হাতে এর প্রতিকার করা দরকার।

স্থানীয় লোকজন জানায়-বিশেষ করে প্রভাবশালীদের ইন্দনে স্থানীয় থানার পুলিশ ধর্ষনের বিষয়ে ভিকটিমের পক্ষে কাজ করতে অনিহা প্রকাশ করে। এ কারণে দিন দিন বাড়ছে ধর্ষণের সংখ্যা। এভাবেই ভোগান্তির স্বীকার হয়েছে রায়পুরা উপজেলার পলাশতলী গ্রামের মোঃ কাশেম মিয়ার কন্যা শাহিদা (১২)।



এই পাতার আরও সংবাদ:-





DMCA.com Protection Status
টিম-নরসিংদী প্রতিদিন এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে শাহিন আইটি এর একটি প্রতিষ্ঠান-নরসিংদী প্রতিদিন-
Theme Customized BY WooHostBD