1. khandakarshahin@gmail.com : Breaking News : Breaking News
  2. laxman87barman@gmail.com : laxman barman : laxman barman
  3. shahinit.mail@gmail.com : narsingdi : নরসিংদী প্রতিদিন
  4. msprovat@gmail.com : ms provat : ms provat
  5. hsabbirhossain542@gmail.com : সাব্বির হোসেন : সাব্বির হোসেন
রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০৮:১৯ পূর্বাহ্ন

আর্জেন্টিনার হয়ে ঝড় তুলতে তৈরি চার মূর্তি

ডেস্ক রিপোর্ট | নরসিংদী প্রতিদিন
  • প্রকাশের তারিখ | শনিবার, ১৬ জুন, ২০১৮

স্পোর্টস ডেস্ক,নরসিংদী প্রতিদিন,শনিবার,১৬ জুন ২০১৮: বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ খেলতে নামার আগে চর্চায় আর্জেন্টিনার চার মূর্তি। বলা হচ্ছে, এমন ভয়ঙ্কর আক্রমণ ভাগ নিয়ে আর কখনও কোনও বিশ্বকাপে খেলতে আসেনি কোনও দল।

কারা সেই চার জন?

নেতৃত্বে অবশ্যই লিয়োনেল মেসি। সঙ্গে থাকছেন সের্খিও আগুয়েরো, গঞ্জালো হিগুয়াইন এবং পাওলো দিবালা। ইতিহাস ঘাঁটলে আর্জেন্টিনার অনেক দলেই দারুণ সব আক্রমণাত্মক ফরোয়ার্ড লাইন পাওয়া যাবে। কিন্তু এক সঙ্গে এমন চার মূর্তি কমই দেখা গিয়েছে। যারা প্রত্যেকেই নিজেদের ক্লাবের প্রধান মুখ। প্রত্যেকেই গোল করতে পারেন। চার জনে মিলে চলতি মরসুমে ক্লাব ফুটবলে মোট ১২৪টি গোল করেছেন।

সকলের চেয়ে এগিয়ে মেসি। বার্সেলোনার হয়ে এই মরসুমেও ৫৪ ম্যাচে ৪৫ গোল করেছেন তিনি। শুধু ক্লাবের হয়ে শাসন করা নয়, আর্জেন্টিনার হয়ে বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করাও নিশ্চিত করে দেন মেসিই। রাশিয়ার টিকিট অর্জন করতে হলে যোগ্যতা অর্জন পর্বের শেষ ম্যাচে আর্জেন্টিনাকে জিততেই হত। হ্যাটট্রিক করে মেসি দেশের লজ্জা আটকান। তাকে ছাড়া রাশিয়ায় আসাই হয়তো হত না আর্জেন্টিনার।

ম্যাঞ্চেস্টার সিটিতে শুরুর দিকে পেপ গুয়ার্দিওলার আস্থা অর্জন করতে না পারলেও পরের দিকে প্রধান স্ট্রাইকার হয়ে ওঠেন আগুয়েরো। তেমনই জুভেন্তাসের প্রধান গোল স্কোরার হিগুয়াইন। এ বারেও ইতালি সেরা হয়েছে জুভেন্তাস। তার পিছনে বড় অবদান হিগুয়াইনের। তার সঙ্গেই জুভেন্তাসে খেলেন দিবালা।
যাকে নতুন তারা হিসেবে দেখা হচ্ছে। জুভেন্তাসের হয়ে এই মরসুমে ৪৮ ম্যাচে ২৬ গোল করেছেন দিবালা। যদিও আর্জেন্টিনার কোচ সাম্পাওলি ইঙ্গিত দিয়েছেন, তিনি এক সঙ্গে চার জনকে সম্ভবত খেলাতে পারছেন না। সাম্পাওলি জানিয়েছেন, শনিবারের ম্যাচে আগুয়েরোকে দিয়ে শুরু করবেন।

সেক্ষেত্রে হিগুয়াইনকে হয়তো বেঞ্চে বসতে হবে। দিবালাকেও খেলানো হবে কি না, নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। সাম্পাওলির কথায় ইঙ্গিত, মেজাকে বেশি পছন্দ হয়েছে তার। সামনে আগুয়েরোকে রেখে মেসির দু’পাশে অ্যাঙ্খেল ডি’মারিয়া এবং মেজাকে রাখার পরিকল্পনা রয়েছে তার।

আর্জেন্টিনার চার মূর্তির সঙ্গে তুলনা করতে গিয়ে চলে আসছে ২০০৬ জার্মানি বিশ্বকাপে ইতালির আক্রমণ বিভাগের কথা। সে বার ইতালি দলে ছিলেন ফ্রান্সেসকো তোত্তি, আলেসান্দ্রো দেল পিয়েরো, ফিলিপো ইনজাঘি। অথবা তুলনা হতে পারে ২০০২ বিশ্বকাপে ব্রাজিলের ‘আর’ ত্রয়ীর সঙ্গে। রোনাল্ডো, রিভাল্ডো, রোনাল্ডিনহো।



এই পাতার আরও সংবাদ:-





DMCA.com Protection Status
টিম-নরসিংদী প্রতিদিন এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে শাহিন আইটি এর একটি প্রতিষ্ঠান-নরসিংদী প্রতিদিন-
Theme Customized BY WooHostBD