1. khandakarshahin@gmail.com : Breaking News : Breaking News
  2. laxman87barman@gmail.com : laxman barman : laxman barman
  3. shahinit.mail@gmail.com : narsingdi : নরসিংদী প্রতিদিন
  4. msprovat@gmail.com : ms provat : ms provat
  5. hsabbirhossain542@gmail.com : সাব্বির হোসেন : সাব্বির হোসেন
সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৪০ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞাপণ দিতে ০১৭১৮৯০২০১০

মনোহরদীতে কিশোর নির্যাতন: এএসপিসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

ডেস্ক রিপোর্ট | নরসিংদী প্রতিদিন
  • প্রকাশের তারিখ | শনিবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
  • ৩৭৮ পাঠক

নরসিংদী প্রতিদিন,শনিবার, ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮:
মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে নরসিংদীর মনোহরদীতে এক ইউপি সদস্যের ছেলেকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় খলিলুর রহমান নামে পুলিশের এক এএসপিসহ ৬ জনের নামে আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

গত ৪ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার নরসিংদী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন আদালতে মামলাটি দায়ের করেছেন নির্যাতিত ওই কিশোরের মা শিউলি বেগম।

শিউলি বেগম মনোহরদী উপজেলার একদুয়ারীয়া ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জসীম উদ্দিন মৃধার স্ত্রী।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন- এএসপি খলিলুর রহমানের তিন ভাই ওলি মিয়া, আব্দুল মালেক, আসাদুল্লাহ, ভাতিজা টিপু ও রফিজউদ্দিনের ছেলে মোশারফ মিয়া।

অভিযুক্ত এএসপি খলিলুর রহমান ওই ইউনিয়নের মৃত সুলতান উদ্দিনের ছেলে। তিনি এস.বি ঢাকা (স্পেশাল ব্রাঞ্চ) সহকারী পুলিশ সুপারের দায়িত্বে রয়েছেন।

মামলা এজাহারে বাদী শিউলি বেগম অভিযোগ করেন, গত ২৮ আগস্ট অভিযুক্ত খলিলুর রহমান ও তার ভাইরা মিলে বাদীনীর ছেলে রনি মৃধা (১৮)কে মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে তাকে ধরে নিয়ে বাড়ির পাশে একটি গাছের সাথে বেঁধে অমানবিক নির্যাতন করে।

ঘটনার পর ছেলেকে নির্যাতনের বিষয় জানতে গেলে তারা শিউলি বেগমকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে। এক পর্যায়ে তারা ছেলের সামনে শিউলি বেগমের শরীরের জামাকাপড় ছিড়ে তাকেও শারীরিকভাবে নির্যাতন করে। এসময় অভিযুক্তদের মধ্যে কয়েকজন তা মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণ করে।

ঘটনার পর ভুক্তভোগী পরিবার মনোহরদী থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ বিষয়টি সামাজিকভাবে মিমাংসার কথা বলে। পরে শিউলি বেগম আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে দুটি মামলা দায়ের করে।

এ ব্যাপারে মনোহরদী থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানান, নির্যাতনের বিষয়ে থানায় কেউ অভিযোগ করতে আসেনি। তবে এএসপি সাহেব মোবাইল ফোনে জানায় যে, ঘটনার দিন তিনি বাড়ির বাহিরে বের হলে এলাকার কিছু ছেলে ওনার মোবাইল ফোন ছিনতাই করতে চেষ্টা করে। এ ঘটনায় ইউপি সদস্যের ছেলে জড়িত ছিল বলে জানায়। পরে বিষয়টি মিমাংসার জন্য ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান দায়িত্ব নেয়।

এ ব্যাপারে জানার জন্য একদুয়ারীয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আনিসুজ্জামান মিটুলের মোবাইল ফোনে একাধিক বার ফোন দিয়েও তাকে পাওয়া যায়নি।

অপরদিকে বিষয়টি নিয়ে এএসপি খলিলুর রহমানের সাথে কথা বললে তিনি ব্যস্ততা দেখিয়ে এ ব্যাপারে পরে কথা বলবেন বলে জানান।
সূত্র: আলোকিত বাংলাদেশ



সংবাদটি শেয়ার করিুন

এই পাতার আরও সংবাদ:-



বিজ্ঞাপণ দিতে ০১৭১৮৯০২০১০



DMCA.com Protection Status
টিম-নরসিংদী প্রতিদিন এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে শাহিন আইটি এর একটি প্রতিষ্ঠান-নরসিংদী প্রতিদিন-
Theme Customized BY WooHostBD