1. khandakarshahin@gmail.com : Breaking News : Breaking News
  2. laxman87barman@gmail.com : laxman barman : laxman barman
  3. shahinit.mail@gmail.com : narsingdi : নরসিংদী প্রতিদিন
  4. msprovat@gmail.com : ms provat : ms provat
  5. hsabbirhossain542@gmail.com : সাব্বির হোসেন : সাব্বির হোসেন
শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০৫:৪১ অপরাহ্ন

নরসিংদীর ৫টি আসনে ঘুরেফিরে তাঁরাই আ.লীগের প্রার্থী

ডেস্ক রিপোর্ট | নরসিংদী প্রতিদিন
  • প্রকাশের তারিখ | বৃহস্পতিবার, ২৯ নভেম্বর, ২০১৮

প্রণব কুমার দেবনাথ, নরসিংদী প্রতিদিন, বৃহস্পতিবার ২৯ নভেম্বর ২০১৮: নরসিংদীর সংসদীয় ৫টি আসনের সব কটিতেই দলীয় মনোনয়ন চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ। এসব আসনে দলীয় মনোনয়নপ্রাপ্তরা গতকাল রোববার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ের আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে নিজ নিজ চিঠি গ্রহণ করেন। ২০০৮ সালে নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যাঁরা আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেয়েছিলেন এবারও তাঁদেরই দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে।

মনোনয়নপ্রাপ্তরা হলেন নরসিংদী-১ (সদর) আসনের বর্তমান সাংসদ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম, নরসিংদী-২ (পলাশ) আসনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাবেক সাংসদ আনোয়ারুল আশরাফ খান, নরসিংদী-৩ (শিবপুর) আসনে সাবেক সাংসদ জহিরুল হক ভূঁইয়া, নরসিংদী-৪ (বেলাব-মনোহরদী) আসনে সাংসদ নুরুল মজিদ মাহমুদ ও নরসিংদী-৫ (রায়পুরা) আসনে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সাংসদ রাজিউদ্দিন আহমেদ। দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার পর থেকে ৫টি আসনেই প্রার্থীদের কর্মী-সমর্থকেরা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন।

নরসিংদী-১ আসনের দলীয় নেতা-কর্মীরা বলছেন, আওয়ামী লীগ থেকে এই আসনে দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন ছয়জন। দল আস্থা রেখেছে বর্তমান সাংসদ নজরুল ইসলামের ওপর। তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হওয়ার পর নেতা-কর্মীদের অভ্যন্তরীণ কোন্দল ও দ্বন্দ্ব মিটিয়ে সবাইকে একত্র করেছেন। গত ১০ বছরে চরাঞ্চলের জন্য সেতু নির্মাণসহ আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নয়নে কাজ করেছেন।

নজরুল ইসলাম বলেন, ‘আমার ওপর বিশ্বাস ও আস্থা রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাই তাঁর প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে কাউকে মাইনাস করে নয়, সব নেতা-কর্মীকে সঙ্গে নিয়ে আমার আসনসহ জেলার পাঁচটি আসনেই নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে চাই।’

নরসিংদী-২ আসনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতা-কর্মীরা বলেছেন, দল থেকে পলাশের এই আসনে দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন পাঁচজন। দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন সাবেক সাংসদ আনোয়ারুল আশরাফ খান। ২০০৮ সালে এই আসন থেকে নৌকা প্রতীকে বিজয়ী হয়ে সাংসদ হন তিনি। ২০১৪ সালে জাসদের (ইনু) জায়েদুল কবির মহাজোটের প্রার্থী হলে তাঁর ছোট ভাই কামরুল আশরাফ খান স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচন করে বিজয়ী হন।

আনোয়ারুল আশরাফ খান বলেন, ‘অর্থনৈতিক অঞ্চল পলাশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখব। দলীয় নেতা-কর্মীরা আমার নেতৃত্বে সংগঠিত আছে। তাঁদের সবাইকে নিয়ে নৌকার বিজয় ছিনিয়ে আনতে চাই।’

নরসিংদী-৩ আসনের দলীয় নেতা-কর্মীরা বলছেন, আওয়ামী লীগ থেকে শিবপুরের এই আসনে দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন আটজন। মনোনয়ন পেয়েছেন সাবেক সাংসদ জহিরুল হক ভূঁইয়া। ২০০৮ সালে বিএনপির সাবেক মহাসচিব আবদুল মান্নান ভূঁইয়াকে পরাজিত করে এই আসনে চমক দেখিয়েছিলেন তিনি। ২০১৪ সালে স্বতন্ত্র প্রার্থী সিরাজুল ইসলাম মোল্লার কাছে পরাজিত হন তিনি। তৃণমূলের অধিকাংশ নেতা-কর্মী তাঁর সঙ্গে আছেন বলে দাবি করছেন নেতা-কর্মীরা।

জহিরুল হক ভূঁইয়া বলেন, ‘আবারও দল আমার ওপর আস্থা রাখায় আমি কৃতজ্ঞ। আমার দৃঢ়বিশ্বাস, তৃণমূল নেতা-কর্মীদের চোখের জল মূল্যায়ন করেই আমাকে নৌকা প্রতীক দেওয়া হয়েছে। মাদক, সন্ত্রাস ও জঞ্জালমুক্ত শিবপুর ফিরিয়ে আনতে আমি সর্বোচ্চ চেষ্টা করব।’

নরসিংদী-৪ আসনের দলীয় নেতা-কর্মীরা বলছেন, আওয়ামী লীগ থেকে বেলাব-মনোহরদীর এই আসনে দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন ১৪ জন। দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন সাংসদ নুরুল মজিদ মাহমুদ। তিনি এই আসনের তিনবারের সাংসদ। বিগত সময়ে নানা বিষয় নিয়ে দলীয় অনেক নেতা-কর্মীর সঙ্গে সাংসদ নুরুল মজিদের দূরত্ব তৈরি হয়। তাই পরিবর্তন চেয়ে বর্তমান সাংসদের বিরুদ্ধে এককাট্টা হয়েছিলেন মনোনয়নপ্রত্যাশী পাঁচজন। এ নিয়ে দলের নেতা-কর্মীরা কয়েক ভাগে বিভক্ত। সবাইকে একত্র করা না গেলে বিএনপির প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিজয় ছিনিয়ে আনা কঠিন হবে। তবে দলীয় নেতা-কর্মীরা বলছেন, এখন সব নেতা-কর্মী এক হয়ে নৌকার জন্য ভোট চাইবেন।

# এডমিন: লক্ষন বর্মন।



এই পাতার আরও সংবাদ:-





DMCA.com Protection Status
টিম-নরসিংদী প্রতিদিন এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে শাহিন আইটি এর একটি প্রতিষ্ঠান-নরসিংদী প্রতিদিন-
Theme Customized BY WooHostBD