1. khandakarshahin@gmail.com : Breaking News : Breaking News
  2. laxman87barman@gmail.com : laxman barman : laxman barman
  3. shahinit.mail@gmail.com : narsingdi : নরসিংদী প্রতিদিন
  4. msprovat@gmail.com : ms provat : ms provat
  5. hsabbirhossain542@gmail.com : সাব্বির হোসেন : সাব্বির হোসেন
সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১২:১২ অপরাহ্ন

রেকর্ড় স্কোর টপকাতে পারলো না খুলনা

ডেস্ক রিপোর্ট | নরসিংদী প্রতিদিন
  • প্রকাশের তারিখ | রবিবার, ২০ জানুয়ারী, ২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক | নরসিংদী প্রতিদিন-
রবিবার,২০ জানুয়ারি ২০১৯:
রেকর্ড় স্কোর টপকাতে পারলো না খুলনা
বিপিএলের আজকের দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে খুলনা টাইটান্সকে ২৬ রানে হারিয়েছে চিটাগং ভাইকিংস। ম্যাচ সেরা হয়েছেন মুশফিকুর রহিম।

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে শেহজাদ, ইয়াসির আলী, মুশফিকুর রহিম ও দাসুন শানাকার বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে খুলনা টাইটানসকে ২১৫ রানের পর্বতসম লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়েছে চিটাগং। বিপিএলের ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্কোর এটি।

এক ইনিংসে সর্বোচ্চ রানের এই রেকর্ড গড়তে এদিন প্রথম ঝড়টা তুলেছিলেন চিটাগংয়ের আফগান অপেনার মোহাম্মদ শেহজাদ। তাইজুলের বলে ক্যাচ তুলে সাজঘরে ফেরার আগে মাত্র ১৭ বলে ৩ চার ও ৩ ছক্কায় ৩৩ রান করেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। তবে এদিন সুবিধা করতে পারেননি ক্যামেরন ডেলপোর্ট ১২ বলে ১৩ রান করে শরিফুলের শিকার হন তিনি।

দলীয় ৫৬ রানে শেহজাদ ফিরে গেলে ইয়াসির আলী ও মুশফিকুর রহিম খোলস ভেঙে বেরিয়ে আসেন। এ দুজনে মিলে ৮৫ রানের জুটি গড়েন। ইয়াসির ৫ চার ও ৩ ছক্কায় ৩৬ বলে ৫৪ ও মুশফিক ৮ চার ও ১ ছক্কায় ৩৩ বলে ৫২ রানের চোখ ধাঁধানো ইনিংস খেলেন।

তবে শেষ ঝড়টা তখনও হানা দেয়নি মাহমুদউল্লাহদের শিবিরে। ইয়াসির ও মুশফিক সাজঘরে ফেরার পর খুলনার বোলারদের ওপর এক কথায় একক শাসন কায়েম করেন লঙ্কান অলরাউন্ডার দাসুন শানাকা। মাত্র ১৭ বলে ৩ চার ও ৪ ছক্কায় তার অপরাজিত ৪২ রানের ইনিংসটিই বিপিএলে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড এনে দেয় চিটাগংকে। নাজিবুল্লাহ জরদান ৫ বলে ১৬ রান নিয়ে অপরাজিত থাকেন।

খুলনার হয়ে ৪ ওভারে ২৬ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন ডেভিড ওয়াইসি। এছাড়া শরিফুল ও তাইজুল নেন একটি করে উইকেট। ৪ ওভারে ৪৪ রান দিয়েও উইকেটের দেখা পাননি লাসিথ মালিঙ্গা।

জয়ের জন্য ২১৬ রানের বিশাল টার্গেটের জবাব দিতে নেমে ১৮ রানেই ৩ উইকেট হারিয়ে বসে খুলনা টাইটান্স। এরপর দলকে খেলায় ফেরানোর চেষ্টা করেন জিম্বাবুয়ের বেন্ডন টেইলর ও অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। ৬৮ রানের জুটি গড়েন তারা। এরপরই মিনি ধস নামে খুলনার ইনিংসে। টেইলর ২৮, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ২৬ বলে ৫০ ও আরিফুল হক ১১ রানে ফিরলে খাদের কিনারায় চলে যায় খুলনা।

তারপরও শেষের দিকে ওয়াইস ব্যাট হাতে ঝড় তুলেন। ফলে খুলনার হারের ব্যবধান কমে। ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৮৮ রান করে তারা।

ওয়াইস ২টি চার ও ৪টি ছক্কায় ২০ বলে ৪০ রান করেন। চিটাগং-এর আবু জায়েদ ৩৩ রানে ৩ উইকেট নেন।



এই পাতার আরও সংবাদ:-





DMCA.com Protection Status
টিম-নরসিংদী প্রতিদিন এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে শাহিন আইটি এর একটি প্রতিষ্ঠান-নরসিংদী প্রতিদিন-
Theme Customized BY WooHostBD