1. khandakarshahin@gmail.com : Breaking News : Breaking News
  2. laxman87barman@gmail.com : laxman barman : laxman barman
  3. shahinit.mail@gmail.com : narsingdi : নরসিংদী প্রতিদিন
  4. msprovat@gmail.com : ms provat : ms provat
  5. hsabbirhossain542@gmail.com : সাব্বির হোসেন : সাব্বির হোসেন
সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০৬:৪২ অপরাহ্ন

বাংলাদেশকে উড়িয়ে দিল স্কটল্যান্ড

ডেস্ক রিপোর্ট | নরসিংদী প্রতিদিন
  • প্রকাশের তারিখ | সোমবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২১

স্কোর: বাংলাদেশ ১৩৪/৭ (২০ ওভার), স্কটল্যান্ড ১৪০/৯ (২০ ওভার)
ফল: স্কটল্যান্ড ৬ রানে জয়ী।

বোলাররা লক্ষ্য নাগালে রেখেছিলেন। ব্যাটসম্যানরা নিতে পারলেন না দায়িত্ব। ফিল্ডিংটাও নড়বড়ে। সব মিলিয়ে বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স একেবারেই হতশ্রী। ব্যাটিং, বোলিংয়ের সঙ্গে ফিল্ডিংয়েও স্কটল্যান্ড ছিল দুর্দান্ত। ফলাফল যা হবার তাই হলো। বাংলাদেশকে ৬ রানে হারিয়ে বিশ্বকাপের যাত্রা শুরু করলো স্কটল্যান্ড। বাংলাদেশের আমন্ত্রণে ব্যাটিংয়ে নেমে ৯ উইকেটে ১৪০ রান তুলেছিল স্কটল্যান্ড। জবাবে বাংলাদেশ ৭ উইকেট হারিয়ে ১৩৪ রানের বেশি করতে পারল না।

হুমকিতে কাজ হলো!

মাঠে নামার একদিন আগে স্কটল্যান্ড কোচ বাংলাদেশকে ‘পাত্তা’ দিচ্ছিলেন না। গণমাধ্যমে জানিয়েছিলেন, তিনি বাংলাদেশকে ওমান ও পাপুয়া নিউ গিনির থেকে ওপরে দেখেন না। সঙ্গে ‘হুমকি’ও দিয়ে রেখেছেন, যে কোনো প্রতিপক্ষকেই তারা হারাতে পারে। স্কটল্যান্ড কোচ শেন বার্জারের সেই হুমকিই মনে হয় কাজে দিল। বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচের পারফরম্যান্স সেই কথাই বলছে। ব্যাটিং, বোলিংয়ের সঙ্গে ফিল্ডিংয়ে দাপট দেখিয়ে স্কটল্যান্ড ম্যাচ জিতেছে। বাংলাদেশের শারীরিক ভাষাও ছিল নড়বড়ে। আর স্কটিশরা খেলেছে মন খুলে। কোনো জড়তা ছিল না। আত্মবিশ্বাস ছিল টগবগে। বাংলাদেশকে হারানোর জেদই হয়তো কাজে দিয়েছে স্কটিশদের।

৬ বলে দরকার ২৪ রান

দুই সেট ব্যাটম্যান সাকিব ও মুশফিককে হারানোর পর রানের গতি কমে আসে। পঞ্চম উইকেটে আফিফ হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে লড়াইয়ে ছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তবে আসকিং রান রেট অনুযায়ী রান তুলতে পারেননি। শেষ ৩ ওভারে জয়ের জন্য বাংলাদেশের দরকার ছিল ৩৭ রান। কিন্তু দ্রুত উইকেট হারিয়ে ম্যাচ হারের শঙ্কায় বাংলাদেশ। আফিফ হোসেন ও কাজী নুরুল হাসান সোহান দ্রুত সাজঘরে ফিরেছেন। টিকতে পারেননি মাহমুদউল্লাহও। ২২ বলে ২৩ রান করে ফিরেছেন। শেষ ৬ বলে বাংলাদেশের জয়ের জন্য দরকার ২৪ রান।

মুশফিক বোল্ড, বিপদে বাংলাদেশ
মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে ৪৮ রানের জুটি গড়ে সাজঘরে ফিরলেন সাকিব আল হাসান। ক্রিস্টোফার গ্রিভস নিজের বোলিংয়ে প্রথম বলেই পেয়েছেন উইকেট। লেগ স্পিনারের বল মিড উইকেট দিয়ে তুলে মারতে গিয়ে সীমানায় ক্যাচ দেন ২৮ বলে ২০ রান করা সাকিব। এক ওভার পর এই লেগ স্পিনারকে উইকেট উপহার দেন মুশফিকুর রহিম। উইকেট থেকে সরে স্কুপ করতে গিয়ে বল মিস করে বোল্ড হন মুশফিক। ৩৬ বলে ৩৮ রান করে মুশফিক সাজঘরে ফেরেন। এক ওভার বিরতিতে দুই সেট ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে চাপে বাংলাদেশ। শেষ ৬ ওভারে জয়ের জন্য বাংলাদেশের দরকার ৬১ রান।

৬০ বলে দরকার ৮২ রান
১৪১ রান তাড়া করতে নেমে বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ের শুরুটা ভালো হয়নি। ১৮ রানে হারায় ২ উইকেট। সেখান থেকে মুশফিক ও সাকিব জুটি বেঁধে দলকে এগিয়ে নিচ্ছেন। ১০ ওভার শেষে বাংলাদেশের রান ৫৯। জয়ের জন্য শেষ ১০ ওভারে বাংলাদেশকে করতে হবে ৮২ রান। পারবে তো বাংলাদেশ?

পঞ্চাশ পেরিয়ে বাংলাদেশ

প্রথম ৬ ওভারে বৃত্তের সুবিধা কাজে লাগাতে পারল না বাংলাদেশ। স্কটল্যান্ডের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে মাত্র ২৫ রান তুলেছে বাংলাদেশ। শুরুতেই হারায় দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান সৌম্য ও লিটনকে। এরপর রান তোলা যেন ভুলেই যায় বাংলাদেশ। স্ট্রাইক রোটেট হয়নি। আসেনি বাউন্ডারি। পাওয়ার প্লে’তে বাংলাদেশের ব্যাট থেকে আসে মাত্র ২টি বাউন্ডারি। এ সময়ে ডট বলই খেলেছে ১৯টি। নবম ওভারে মুশফিক অফস্পিনার লিস্ককে দুই ছক্কা হাঁকান। ওই ওভারে বাংলাদেশ পায় ১৯ রান। তাতে কিছুটা আশার আলো দেখতে পায় বাংলাদেশ। দলীয় নবম ওভারে বাংলাদেশের রান পঞ্চাশ পেরিয়েছে।

সৌম্যর পথ ধরলেন লিটন

লক্ষ্য আহামরি বড় নয়। বোলাররা নাগালেই রেখেছেন টার্গেট। তবুও শুরুতে তালগোল পাকানো ব্যাটিং। সৌম্য শুরুতে ফেরার পর লিটনও তার পথ ধরলেন। সৌম্য করলেন ৫ রান। লিটনের ব্যাট থেকেও আসল একই রান। ১৮ রানে বাংলাদেশের দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান সাজঘরে। সাকিবকে সঙ্গ দিতে উইকেটে এসেছেন মুশফিকুর রহিম।

সৌম্য শেষ শুরুতেই

১৪১ রানের লক্ষ্য তাড়ায় শুরুটা ভালো হলো না বাংলাদেশের। ওপেনার সৌম্য সরকার হতাশ করে ফিরলেন ৫ রানে। নিজের খেলা প্রথম বলে চার মেরে শুরু করেছিলেন। কিন্তু পরের ওভারে আবার একই শটে সৌম্য ফিরলেন সাজঘরে। শুরুতেই সৌম্যকে হারিয়ে বিপর্যয়ে বাংলাদেশ। তিনে নেমেছেন সাকিব। দেখার বিষয় লিটনকে সঙ্গে নিয়ে কতদূর যায় সাকিবের ব্যাট।

বাংলাদেশের টার্গেট ১৪১

শুরুতেই ধাক্কা। এরপর প্রতিরোধ। এরপর আবার হোঁচট। বাংলাদেশের স্পিনারদের ঘূর্ণিতে স্রেফ এলোমেলো হওয়া। শেষটায় আবার লড়াই। তাতে মিলল স্বস্তি। রোলার কোস্টারের মতো ঘুরলো স্কটল্যান্ডের ইনিংস। বাংলাদেশের আমন্ত্রণে ব্যাটিংয়ে নেমে বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে স্কটল্যান্ড ৯ উইকেটে করলো ১৪০ রান। জয়ে বিশ্বকাপের মিশন শুরু করতে বাংলাদেশের প্রয়োজন ১৪১ রান।

শেষটা রাঙাল স্কটল্যান্ডই

বোলিংয়ে শেষটা ভালো হলো না বাংলাদেশের। ৫৩ রানে ৬ উইকেট হারানোর পর দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে স্কোরবোর্ডে ১৪০ রান তুলেছে স্কটল্যান্ড। শেষ ৫ ওভারে দশের উপর রান তুলে স্কটিশরা যোগ করেছে ৫৩ রান।

ক্যামিও ইনিংস খেলেছেন ক্রিস্টোফার গ্রিভস। মাত্র ২৮ বলে ৪ চার ও ২ ছক্কায় ৪৫ রান করেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। সপ্তম উইকেটে তাকে দারুণ সঙ্গ দিয়েছেন মার্ক ওয়াট। ৩৪ বলে ৫১ রান যোগ করেন দুজন। তাতে স্কটল্যান্ড লড়াইয়ের পুঁজি পেয়েছে।

কতদূর যাবে স্কটল্যান্ড?

১ উইকেট হারিয়ে স্কটল্যান্ডে রান ছিল তখন ৪৫। এরপর ৮ রান যোগ করতেই তারা হারায় ৫ উইকেট। ৫৩ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে বিপদেই পড়েছিল স্কটিশরা। সপ্তম উইকেটে ক্রিস্টোফার গ্রিভস ও মার্ক ওয়াটের ব্যাটে লড়াই করছে তারা। ১৬ ওভার শেষে স্কটল্যান্ডের রান ৯৬। শেষ ৪ ওভারে কতদূর যাবে তাদের স্কোর?

৪১ বল পর বাউন্ডারি!

টি-টোয়েন্টি মানে চার-ছক্কার ফুলঝুরি। কিন্তু বাংলাদেশের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে বাউন্ডারি মারা যেন ভুলেই গেছেন স্কটল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরা। ষষ্ঠ ওভারের পঞ্চম বলে মোস্তাফিজ ছক্কা হজম করেছিলেন। এরপর ৪১ বলে কোনো বাউন্ডারি নেই। ১৩তম ওভারের পঞ্চম বলে আফিফের বলে চার মারেন ক্রিস্টোফার গ্রিভস।

অনসং মেহেদী

স্পিনার মেহেদীকে কোনোভাবে খেলতেই পারছেন না স্কটল্যান্ডের ব্যাটসম্যান। ডানহাতি অফস্পিনার নিজের তৃতীয় উইকেট পেলেন তৃতীয় ওভারে। এবার তার শিকার ক্যালাম ম্যাকলিওড। উইকেট থেকে সরে কাট করতে গিয়ে বল মিস করে বোল্ড কন ম্যাকলিওড। ১৪ বলে ৫ রান করে ফেরেন তিনি। স্কটল্যান্ড হারাল ষষ্ঠ উইকেট।

জোড়া সাফল্যে সাকিবের রেকর্ড

তৃতীয় ওভারে বল হাতে জোড়া সাফল্য পেলেন সাকিব আল হাসান। রিচি বেরিংটনকে সীমানায় আফিফের হাতে তালুবন্দি করানোর পর মাইকেল লিস্ককেও আউট করেন সাকিব। জোড়া সাফল্যে সাকিব টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সর্বোচ্চ উইকেট নেওয়ার রেকর্ডটি নিজের করে নেন।

১০৬ উইকেট নিয়ে আজ মাঠে নেমেছিলেন সাকিব। ১০৭ উইকেট নিয়ে লাসিথ মালিঙ্গা ছিলেন শীর্ষে। জোড়া সাফল্যে সাকিব এখন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী।

জোড়া সাফল্যে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিলেন মেহেদী

স্পিনার মেহেদী হাসান নিজের প্রথম ওভারেই পেলেন জোড়া সাফল্য। প্রথমে ম্যাথু ক্রস তার বোলিংয়ে ক্রস খেলতে গিয়ে বল মিস করে এলবিডব্লিউ হন। ১৭ বলে ১১ রান করে সাজঘরে ফেরেন ক্রস। জর্জ মুনসিকে সাথে নিয়ে ২৯ বলে ৪০ রানের জুটি গড়েছিলেন ক্রস। সঙ্গী হারানোর পর টিকতে পারেননি মুনসি। দুই বল পর স্লগ সুইপ করতে গিয়ে বোল্ড হন ২৯ রানে। ২৩ বলে ২টি করে চার ও ছক্কায় ইনিংসটি সাজান মুনসি। নিজের প্রথম ওভারে ৩ রানে ২ উইকেট নেন এ অফস্পিনার।

শুরুর ধাক্কা সামলে স্কটল্যান্ডের প্রতিরোধ

পাওয়ার প্লে’তে ১ উইকেট হারিয়ে ৩৯ রান তুলেছে স্কটল্যান্ড। প্রথম তিন ওভারে স্কটিশদের রান ছিল মাত্র ৭। পরের ৩ ওভারেই ৩২ রান তোলে তারা। ব্যাটিং করছেন জর্জ মুনসি ও ম্যাথু ক্রস। চতুর্থ ওভারে তাসকিন ৯ রান খরচ করেন। পরের ওভারে সাইফ উদ্দিন দেন ১০ রান। পাওয়ার প্লে’র শেষ ওভারে মোস্তাফিজের ওভার থেকে ১৩ রান আদায় করে স্কটল্যান্ড। প্রথম ওভারে কোনো রান না দিলেও নিজের দ্বিতীয় ওভারে এক চার ও এক ছক্কা হজম করেন বাঁহাতি পেসার।

সাইফ উদ্দিনের হাত ধরে প্রথম সাফল্য বাংলাদেশের

শুরুর দুই ওভারে নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে স্কটল্যান্ডকে চাপে রেখেছে বাংলাদেশ। তাসকিন আহমেদ নতুন বলে প্রথম ওভার শুরু করেন। প্রথম চার বলে কোনো রান দেননি তিনি। পঞ্চম বলে মুনসে একটি বাউন্ডারি আদায় করলেও শেষ বলটি ছিল ইয়র্কার। দ্বিতীয় ওভারে মোস্তাফিজুর রহমান কোনো রানই দেননি। মেডেন ওভারে শুরু তার বিশ্বকাপ।

তৃতীয় ওভারে সাইফ উদ্দিন বোলিংয়ে এসে বাংলাদেশকে সাফল্যে ভাসান। প্রথম তিন বলে কোনো রান না দেওয়ার পর চতুর্থ বলে স্কটল্যান্ডের অধিনায়ক কাইল কোয়েটজাকে বোল্ড করেন ডানহাতি পেসার।

তিন পেসার নিয়ে বাংলাদেশ একাদশ

লিটন দাস, সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ (অধিনায়ক), আফিফ হোসেন, নুরুল হাসান সোহান (উইকেটকিপার), মেহেদী হাসান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, তাসকিন আহমেদ, মোস্তাফিজুর রহমান।

স্কটল্যান্ড একাদশ

কাইল কোয়েটজার (অধিনায়ক), জর্জ মুনসি, ম্যাথু ক্রস (উইকেটকিপার), রিচি বেরিংটন, ক্যালাম ম্যাকলিওড, মাইকেল লিস্ক, ক্রিস্টোফার গ্রিভস, মার্ক ওয়াট, জশ ডেভি, সাফিয়ান শরীফ, ব্র্যাড হুইল।

টস
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে আল আমিরাতে টস জিতে ফিল্ডিং নিয়েছে বাংলাদেশ। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ বলেছেন, ‘দেখে মনে হচ্ছে ভালো উইকেট, রান হবে অনেক। কিন্তু শিশিরের কারণে আমরা রান তাড়া করতে চাই।’ স্কটিশ অধিনায়ক কাইল কোয়েটজার বলেছেন, ‘যাই হোক আমরা খুশি। প্রথমে ব্যাট করব, খুশি। বোর্ডে রান তুলতে পারলে শেষ ইনিংসে চাপ তৈরি করতে পারব। হয়তো শিশির থাকবে, কিন্তু এর সঙ্গে আমাদের মানিয়ে নিতে হবে।’

বিশ্বকাপে ভালো শুরুর প্রত্যাশায় বাংলাদেশ
বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সবচেয়ে সুখকর সময় পার করছে। টানা তিনটি সিরিজে জয়, র‌্যাংকিংয়ে নিজেদের ইতিহাসে সেরা স্থানে (ষষ্ঠ), এর চেয়ে ভালো কী হতে পারে? লাল সবুজের বাংলাদেশের বিশ্বকাপ মিশন শুরু হচ্ছে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে। ওমানের আল আমিরাত স্টেডিয়ামে দুই দলের ম্যাচটি শুরু ৮টায়।



এই পাতার আরও সংবাদ:-





DMCA.com Protection Status
টিম-নরসিংদী প্রতিদিন এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে শাহিন আইটি এর একটি প্রতিষ্ঠান-নরসিংদী প্রতিদিন-
Theme Customized BY WooHostBD