1. khandakarshahin@gmail.com : Breaking News : Breaking News
  2. laxman87barman@gmail.com : laxman barman : laxman barman
  3. shahinit.mail@gmail.com : narsingdi : নরসিংদী প্রতিদিন
  4. msprovat@gmail.com : ms provat : ms provat
  5. hsabbirhossain542@gmail.com : সাব্বির হোসেন : সাব্বির হোসেন
বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ০৬:১৮ অপরাহ্ন

বিজ্ঞাপণ দিতে ০১৭১৮৯০২০১০

সর্বকালের সর্বোচ্চে খাদ্যশস্যের বৈশ্বিক উৎপাদন

বাণিজ্য ডেস্ক | নরসিংদী প্রতিদিন-
  • প্রকাশের তারিখ | সোমবার, ১৭ জানুয়ারী, ২০২২
  • ২৫ পাঠক

বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চল ও দেশ খাদ্যশস্য উৎপাদন নিয়ে জটিলতার মধ্যে রয়েছে। এ পরিস্থিতির মধ্যেই খাদ্যশস্যের বৈশ্বিক উৎপাদন বাড়ার পূর্বাভাস দিয়েছে ইন্টারন্যাশনাল গ্রেইন কাউন্সিল (আইজিসি)। সর্বশেষ প্রতিবেদনে সংস্থাটি জানায়, ২০২১-২২ মৌসুমে খাদ্যশস্যের বৈশ্বিক উৎপাদন সর্বকালের সর্বোচ্চে পৌঁছবে।

মাসভিত্তিক খাদ্যশস্যের বাজারবিষয়ক প্রতিবেদনে বলা হয়, চলতি মৌসুমে বৈশ্বিক উৎপাদন ২২৮ কোটি ৬০ লাখ টনে পৌঁছবে, যা গত মৌসুমের তুলনায় ৭ কোটি ১০ লাখ টন বেশি। চলতি মৌসুমে খাদ্যশস্যের ব্যবহার ২২৮ কোটি ৭০ লাখ টনে উন্নীত হতে পারে। উৎপাদনের তুলনায় ব্যবহার বাড়লে মজুদ কমে যেতে পারে। মৌসুম শেষে মজুদের পরিমাণ দাঁড়াবে ৬০ কোটি ১০ লাখ টনে। এ নিয়ে টানা পাঁচ মাসের মতো মজুদ কমে যাওয়ার পূর্বাভাস দিল আইজিসি।

সংস্থাটি জানায়, গত বছরের নভেম্বরে যে পূর্বাভাস দেয়া হয়েছিল, তার তুলনায় চলতি মাসে উৎপাদন পূর্বাভাস ১০ লাখ টন কমানো হয়েছে। এর পরও বৈশ্বিক উৎপাদন রেকর্ড পর্যায়ে অবস্থান করবে।
প্রতিবেদন বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, বিশ্বজুড়ে বিশেষ করে দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলোয় ভুট্টা উৎপাদন কমবে। একই সঙ্গে কমতে পারে ওটস, যব ও রাই উৎপাদন। তবে গমের বৈশ্বিক উৎপাদন বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এতে প্রভাবকের ভূমিকা রাখবে অস্ট্রেলিয়া ও আর্জেন্টিনা।

কাউন্সিলের প্রাথমিক পূর্বাভাস অনুযায়ী, ২০২২-২৩ মৌসুমে খাদ্যশস্যের বৈশ্বিক উৎপাদন আরো বেড়ে নতুন উচ্চতায় পৌঁছতে পারে। আগের সব রেকর্ড ভেঙে দিতে পারে ব্যবহারও। ফলে আগামী বছরও বৈশ্বিক মজুদ বাড়ার সম্ভাবনা নেই।

বিশেষজ্ঞদের প্রত্যাশা, ২০২৩ সালের মধ্যে বৈরী আবহাওয়াসহ চলমান প্রতিবন্ধকতার অবসান ঘটবে।

আইজিসি জানায়, চলতি মৌসুমে খাদ্যশস্যের বৈশ্বিক বাণিজ্য ৪২ কোটি ৩০ লাখ টনে উন্নীত হতে পারে। আগের পূর্বাভাসে ৪২ কোটি ১০ লাখ টন বাণিজ্যের পূর্বাভাস দিয়েছিল সংস্থাটি। গমের বৈশ্বিক বাণিজ্য করোনার ধাক্কা কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে সক্ষম হবে।

এমনকি পণ্যটির বাণিজ্য রেকর্ড সর্বোচ্চে পৌঁছতে পারে বলেও ধারণা করছে সংস্থাটির বিশ্লেষকরা। পূর্বাভাস অনুযায়ী, গমের বৈশ্বিক বাণিজ্য ১৯ কোটি ৬০ লাখ টনে পৌঁছতে পারে।

এদিকে, ২০২১-২২ মৌসুমে সয়াবিনের বৈশ্বিক উৎপাদন পূর্বাভাস কমিয়েছে আইজিসি। নভেম্বরের তুলনায় উৎপাদন পূর্বাভাস ১ কোটি ২০ লাখ টন কমানো হয়েছে। মৌসুম শেষে উৎপাদনের পরিমাণ ৩৬ কোটি ৮০ লাখ টনে উন্নীত হতে পারে।

তবে উৎপাদন গত মৌসুমের তুলনায় ঊর্ধ্বমুখী থাকবে। সংশ্লিষ্টরা জানান, দক্ষিণ আমেরিকায় দাবদাহ ও খরার প্রভাবের কারণে পূর্বাভাস কমানো হয়েছে।

অন্যদিকে, দীর্ঘ চার মাস ঊর্ধ্বমুখী থাকার পর কমতে শুরু করেছে খাদ্যশস্যের দাম। এফএওর মূল্যসূচক অনুযায়ী, গত বছরের ডিসেম্বরে খাদ্যশস্যের দাম নভেম্বরের তুলনায় দশমিক ৬ শতাংশ কমেছে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, গত বছর ব্রাজিলে শুষ্ক আবহাওয়ার কারণে ভুট্টা উৎপাদনে বিপর্যয় নামে। এটি বৈশ্বিক সরবরাহে প্রভাব ফেলে। অন্যদিকে পণ্যটির শক্তিশালী চাহিদার কারণে ক্রমেই বাড়ছিল দাম। কিন্তু এতে ভারসাম্য এনেছে গম। দক্ষিণ গোলার্ধের দেশগুলোয় কৃষিপণ্যটির উৎপাদন ভালো হওয়ায় রফতানি মূল্য কমেছে বড় পরিসরে। এটি ডিসেম্বরে খাদ্যশস্যের মূল্যসূচক কমাতে সহায়তা করেছে।

তবে বছরজুড়ে খাদ্যশস্যের মূল্যসূচক বেড়ে প্রায় এক দশকের সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছেছে। এসব পণ্যের গড় দাম ২০২০ সালের তুলনায় ২৭ দশমিক ২ শতাংশ বেড়েছে। এর মধ্যে ভুট্টার দাম ৪৪ দশমিক ১ ও গমের ৩১ দশমিক ৩ শতাংশ বেড়েছে। যদিও চালের দাম কমেছে ৪ শতাংশ।



এই পাতার আরও সংবাদ:-



বিজ্ঞাপণ দিতে ০১৭১৮৯০২০১০



DMCA.com Protection Status
টিম-নরসিংদী প্রতিদিন এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে শাহিন আইটি এর একটি প্রতিষ্ঠান-নরসিংদী প্রতিদিন-
Theme Customized BY WooHostBD