1. khandakarshahin@gmail.com : Breaking News : Breaking News
  2. laxman87barman@gmail.com : laxman barman : laxman barman
  3. shahinit.mail@gmail.com : narsingdi : নরসিংদী প্রতিদিন
  4. msprovat@gmail.com : ms provat : ms provat
  5. hsabbirhossain542@gmail.com : সাব্বির হোসেন : সাব্বির হোসেন
রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৮:০৭ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞাপণ দিতে ০১৭১৮৯০২০১০

রায়পুরায় দুই পক্ষের সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২

নিজস্ব প্রতিবেদক | নরসিংদী প্রতিদিন-
  • প্রকাশের তারিখ | রবিবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০২২
  • ১০৪ পাঠক

নরসিংদীর রায়পুরায় গ্রামে ফেরাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দুইজনে দাড়িয়ে। এঘটনায় আহত হয়েছে আরও ৫জন। রোববার (৩০ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার বাশঁগাড়ী ও মির্জাচর ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, মির্জাচর গ্রামের মানিক ব্যাপারী ছেলে রুবেল মিয়া (২৭) ও হাবিব মিয়ার ছেলে মামুন মিয়া(৩০)। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রায়পুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) গোবিন্দ সরকার।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বাশঁগাড়ী ইউনিয়নের সদ্য সাবেক আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান আশরাফুল হকের সঙ্গে নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান জাকির হোসেন রাতুলের দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। এর জের ধরে একাধিক বার হামলা-পাল্টা-হামলা ও মামলার ঘটনা ঘটে। ওই সব হামলায় একাধিক লোক নিহত সহ প্রায় ৩ শতাধিক মানুষ আহত হন। রোববার সকালে আশরাফুল হক ও তার সমর্থকদের নিয়ে বাশঁগাড়ী গ্রামে ফেরেন। এতে বাধা দেন বর্তমান চেয়ারম্যান রাতুলের সমর্থকরা। এনিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। এ সময় একজন গুলিবিদ্ধসহ আরও পাঁচজন আহত হন। অন্যদিকে মির্জাচর ইউনিয়নের ফারুকুল ইসলামের সমর্থকরা গ্রামে ফেরেন। ওই সময় মির্জাচরের নব-নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান জাফর ইকবাল মানিক সমর্থকরা বাধা দেন। উভয়পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন।
এতে ফারুকুল ইসলামের চাচাতো ভাই রুবেল মিয়া গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হন। এদের মধ্যে মামুন মিয়ার হাত কেটে নেয় প্রতিপক্ষরা। গুরুতর আহত অবস্থায় মামুন মিয়াকে বি-বাড়িয়ার নবীনগরে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে ভৈরব হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেল সাড়ে ৫টায় তার মৃত্যু হয়।
মির্জাচর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ফারুকুল ইসলাম বলেন, বাশঁগাড়ীর সাবেক চেয়ারম্যান আশরাফুলের লোকজনকে গ্রামে তুলে দিতে মির্জাচর থেকে লোকজন সেখানে যায়। তাদের ধাওয়া দিয়ে মির্জাচর পাঠালে বাশঁগাড়ীর রাতুল চেয়ারম্যানের হয়ে মির্জাচরের মানিক চেয়ারম্যানের লোকজন তাদের ওপর হামলা চালায়। প্রতিপক্ষের ছোড়া গুলিতে আমার চাচাতো ভাই রুবেল মারা যায়।
মির্জাচর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাফর ইকবাল মানিক বলেন, বাশঁগাড়ীর সাবেক চেয়ারম্যান আশরাফুল ও মির্জাচরের ফারুকুল ইসলাম এক গ্রুপ। তারা একে অপরকে বরাবরই সহায়তা করে আসছেন। রোববার আশরাফুলের লোকজনকে গ্রামে তুলে দিতে ফারুকুলের লোকজন লাঠিয়াল হিসেবে বাশঁগাড়ী যায়। সেখানে রাতুল চেয়ারম্যানের লোকজন তাদের বাধা দেয়। এখানে আমার কোনো সম্পৃক্ততা নেই।
এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) সাহেব আলী পাঠান জানান, গ্রামে ফেরাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে দুজন নিহত হওয়ার তথ্য পেয়েছি। এ মুহূর্তে এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।



এই পাতার আরও সংবাদ:-



বিজ্ঞাপণ দিতে ০১৭১৮৯০২০১০



DMCA.com Protection Status
টিম-নরসিংদী প্রতিদিন এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে শাহিন আইটি এর একটি প্রতিষ্ঠান-নরসিংদী প্রতিদিন-
Theme Customized BY WooHostBD