1. khandakarshahin@gmail.com : Breaking News : Breaking News
  2. laxman87barman@gmail.com : laxman barman : laxman barman
  3. shahinit.mail@gmail.com : narsingdi : নরসিংদী প্রতিদিন
  4. msprovat@gmail.com : ms provat : ms provat
  5. hsabbirhossain542@gmail.com : সাব্বির হোসেন : সাব্বির হোসেন
রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:৩১ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞাপণ দিতে ০১৭১৮৯০২০১০

রায়পুরায় যুবকের হাতের কব্জি নিয়ে পালালো প্রতিপক্ষ

নিজস্ব প্রতিবেদক | নরসিংদী প্রতিদিন-
  • প্রকাশের তারিখ | বৃহস্পতিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
  • ১২১ পাঠক

নরসিংদীর রায়পুরায় এক যুবকের বাম হাতের কব্জি কেটে নিয়ে পালানোর অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের লোকজনের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার রাত ৭টার দিকে এ বিষয়টি নিশ্চিত করেন রায়পুরা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) গোবিন্দ সরকার নিউজবাংলাকে জানান এ ঘটনায় তদন্ত চলছে। বাম কব্জি কেটে নেওয়া ওই যুবকের নাম আব্দুর রহমান। তিনি উত্তরবাখরনগর ইউনিয়নের রতনপুর গ্রামের আব্দুর রহিমের ছেলে এবং নরসিংদীর শিবপুরের থার্মেক্স গ্রুপের কারখানার শ্রমিক। এর আগে বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪ টার দিকে উপজেলার অলিপুরা ইউনিয়নের সাহেবনগর এলাকায় ঘটনাটি ঘটে।
আহত আব্দুর রহমানের মা সালমা বেগম জানান, আজ ভোরে সাদ্দাম হোসেন নামে এক যুবক বাড়ি থেকে আব্দুর রহমানকে ডেকে নেয়। তাঁরা দুজন শিবপুর থামেক্স গ্রুপের কারখানায় শ্রমিক হিসাবে কাজ করেন। ভোর সাড়ে চারটায় সাহেবনগর স্কুলে পৌঁছানোর আগে তাদের সঙ্গে যোগ দেন একই এলাকার যুবক নূরে আলম। পরে ওই তিনজন স্কুলটির সামনে পৌঁছালে হঠাৎ চারজন ব্যক্তি আব্দুর রহমানের দুই হাত, পা ও মুখ বেঁধে ফেলে। এক পর্যায়ে তাঁরা আব্দুর রহমানের বাম হাতের কব্জিটি কেটে নিয়ে পালিয়ে যায়। ঘটনার পর আব্দুর রহমানের সাথে থাকা সাদ্দাম তার কর্মস্থলে ও নূরে আলম বাড়ি গিয়ে শুয়ে পড়েন। পরে রক্তাক্ত আব্দুর রহমানকে প্রথমে নরসিংদী সদর হাসপাতালে আনা হয়। সেখান থেকে পরে তাকে ঢাকা পঙ্গু হাসাপাতালে পাঠানো হয়েছে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানান গেছে, ঘটনার সূত্রপাত হয় দুই বছর আগে। একটি পাখির বাসাকে কেন্দ্র করে শিশুদের মধ্যে প্রথমে ঝগড়া হয়। পরে এনিয়ে আব্দুর রহমানের চাচাতো ভাইদের সঙ্গে পাশের গ্রাম সাহেবনগরের মজুন মিয়ার লোকজনের মারামারির ঘটনায় ঘটে। এতে মজুনর ভাতিজা সোহরাফ মিয়ার হাতের একটি আঙ্গুল কেটে দেয় প্রতিপক্ষ। পরে উভয় পক্ষ থানায় মামলা দায়ের করেন। ছয় মাস আগে স্থানীয় সালিশে দুপক্ষের আপোষের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত হয় তারা মামলা তুলে নিবেন এবং আব্দুর রহমান পক্ষকে জড়িমানা করা হয় দুই লাখ টাকা।
আহত আব্দুর রহমানের চাচাতো ভাই মো. কাজল মিয়া জানান, পূর্বশত্রুতার জেরেই মাধ্যমে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে মজুন, তার ছেলে অন্তর, ও দুই ভাতিজা সোহরাফ ও ইমরান মিলে আব্দুর রহমানের বাম হাতের কব্জি কেটে নিয়ে গেছে। কাটা কব্জিটি ঘটনাস্থলের আশপাশে কোথাও খোঁজে পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় থানায় মামলা করবেন বলে জানান তিনি।
এদিকে ঘটনার পর মজুন ও তার লোকজন এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে। তাদের বাড়িতে গিয়ে দেখা গেছে ঘরের দরজায় ঝুলছে তালা।
রায়পুরা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) গোবিন্দ সরকার বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল ও ভিকটিমের বাড়িতে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পূর্বশত্রুতার জেরে হাতের কব্জি কেটে নেওয়ার ঘটনার তদন্ত চলছে। এই ঘটনায় এখনো কোন লিখিত অভিযোগ পাননি বলে জানান তিনি।
#



এই পাতার আরও সংবাদ:-



বিজ্ঞাপণ দিতে ০১৭১৮৯০২০১০



DMCA.com Protection Status
টিম-নরসিংদী প্রতিদিন এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে শাহিন আইটি এর একটি প্রতিষ্ঠান-নরসিংদী প্রতিদিন-
Theme Customized BY WooHostBD