লালমনিরহাটে গণসংযোগে ব্যস্ত বিএনপি নেতা উজ্জ্বল

নিউজ ডেস্ক,নরসিংদী প্রতিদিন,সোমবার, ২৯ অক্টোবর ২০১৮:
লালমনিরহাট-১ (হাতীবান্ধা-পাটগ্রাম) আসনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি থেকে মনোনয়ন পেতে যে কয়েক জন প্রার্থী গণসংযোগ চালাচ্ছেন তাদের মধ্যে অ্যাডভোকেট মাজেদুল ইসলাম পাটোয়ারী উজ্জ্বল এক জন। তিনি বেশ কিছুদিন ধরে জেলার হাতীবান্ধা ও পাটগ্রাম উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারের অলিতে গলিতে ও তিস্তা নদীর চরাঞ্চল এলাকায় ভোটারদের সাথে গণসংযোগ করে আসছেন। পাশাপাশি মামলায় জর্জরিত দলীয় নেতা কর্মীদের আইনি সহায়তা দিয়ে ব্যাপক সাড়াও পাচ্ছেন তিনি।

গণসংযোগকালে তিনি বর্তমান সরকারের অনিয়ম, দুর্নীতি, লুটপাটের চিত্র তুলে ধরে দেশের মানুষের রাজনৈতিক ও ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনতে জনসচেতনতা তৈরি করছেন বলে তার দাবি। আগামী সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করবেন কিনা তা নিয়ে সংশয় থাকলেও তিনি তৃণমূল নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে বিভিন্ন দলীয় কর্মকাণ্ডে ব্যস্ত সময় পার করছেন।

অ্যাডভোকেট মাজেদুল ইসলাম পাটোয়ারী উজ্জ্বল ১৯৯০ সালে এরশাদ বিরোধী স্বৈরাচার আন্দোলনের মধ্য দিয়ে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের রাজনীতিতে জড়িয়ে পরেন। ১৯৯২ সালে হাতীবান্ধা উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য পরে রংপুর কারমাইকেল কলেজ ছাত্রদলের সদস্য হন। ১৯৯৯ সালে সুপ্রিম কোর্টে আইনজীবী হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। ২০০৬ সালে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সিনিয়র সহ-সম্পাদক ও পরে যুগ্ম-সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। ২০১৪ সালে সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবি সমিতি’র নির্বাচনে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের প্যানেলে সিনিয়র সহ-সম্পাদক পদে বিজয়ী হন। ২০১০ সালে তিনি রংপুর বিভাগ আইনজীবী কল্যাণ সমিতি নামে একটি সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন। ওই সংগঠনের মাধ্যমে রংপুর বিভাগের অসহায় ও নির্যাতিত মানুষের আইনি সহায়তা দিয়ে আসছেন।

অ্যাডভোকেট মাজেদুল ইসলাম পাটোয়ারী উজ্জ্বল বলেন, ‘লালমনিরহাট-১ (হাতীবান্ধা-পাটগ্রাম) আসনটি বিএনপি’র দখলে ছিল। নেতৃত্বের অভাবে প্রথমে জাতীয় পার্টি ও পরে আওয়ামী লীগের দখলে চলে যায় আসনটি। এই দুই উপজেলায় বিএনপির মাঠপর্যায়ে প্রচুর কর্মী ও সমর্থক থাকলেও শুধুমাত্র নেতৃত্বের অভাবে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী অবস্থান তৈরী করতে পারেনি দলটি। তাই আমি দীর্ঘদিন ধরে আইন পেশার পাশাপাশি সময় পেলেই জন্মভূমি হাতীবান্ধায় এসে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলে দলকে সুসংগঠিত করার চেষ্টা করে আসছি। দীর্ঘ ১০ বছর ধরে এ দুই উপজেলায় বিএনপি’র হাজার হাজার নেতা কর্মীর নামে মিথ্যা মামলা দেয়া হয়েছে। আমি মামলায় জর্জরিত নেতাকর্মীদের আইনি সহায়তার পাশাপাশি তাদের নিয়মিত খোঁজ-খবর নিচ্ছি।’

উজ্জ্বল আরও বলেন, ‘বিএনপি যদি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে আর দল যদি আমাকে মনোনয়ন দেয় তাহলে আমি জনগণকে সাথে নিয়ে এ আসনটি পুনরুদ্ধার করে বেগম খালেদা জিয়াকে উপহার দিতে পারব। আমি বিশ্বাস করি, আগামী নির্বাচনে এ আসনে নৌকা নয়, ধানের শীষের বিজয় হবে।’

Be the first to comment on "লালমনিরহাটে গণসংযোগে ব্যস্ত বিএনপি নেতা উজ্জ্বল"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*