এসএসসির ফরম পূরণের জন্য মনোহরদীতে নেওয়া হচ্ছে বাড়তি টাকা

স্টাফ রিপোর্টার, নরসিংদী প্রতিদিন, সোমবার ১২ নভেম্বর, ২০১৮: নরসিংদীর মনোহরদীর প্রায় সব কটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ফরম পূরণের সময় অন্য কোনো ফি আদায় করা যাবে না—সরকারি এমন নির্দেশনা থাকলেও তা না মেনে বিভিন্ন ছুতায় অতিরিক্ত টাকা নিচ্ছে সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

এতে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, হাইকোর্টের আদেশ, শিক্ষা বোর্ডের বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী ২০১৯ সালের এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য কেন্দ্র ও ব্যবহারিক ফিসহ মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় ১৬৮০ টাকা এবং বিজ্ঞান শাখায় ১৮০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।
বিভিন্ন বিদ্যালয়ে গিয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, উপজেলার মনোহরদী পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে দুই হাজার ৫০০, চন্দনবাড়ী এসএ পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে দুই হাজার ৮০০, শুকুন্দী নাজিম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ে তিন হাজার ৫০০, মধুপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে তিন হাজার, চালাকচর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে দুই হাজার ৬০০, চালাকচর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে দুই হাজার ৭০০, পাঁচকান্দী উচ্চ বিদ্যালয়ে দুই হাজার ৭০০ ও অর্জুনচর উচ্চ বিদ্যালয়ে দুই হাজার ৬০০ টাকা নেওয়া হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে ফরম পূরণের নামে অতিরিক্ত আদায় করা টাকার কোনো রসিদ দিচ্ছে না বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

চন্দনবাড়ী এসএ পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী বলে, ‘দুই হাজার ৭০০ টাকা দিয়ে ফরম পূরণ করেছি। স্কুলের নির্ধারিত টাকা থেকে কম দিলে ফরম পূরণের অনুমতি দিচ্ছেন না প্রধান শিক্ষক। ’

অভিভাবক আবদুর রহমান বলেন, ‘আমরা সন্তান নিয়ে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে সব সময় জিম্মি থাকি। সরকারি নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে যখন-তখন আমাদের ওপর বিভিন্ন ফি চাপিয়ে দেয়। সন্তানের ক্ষতির আশঙ্কায় এসব নিয়ে কখনো মুখ খুলতে পারি না।


শুকুন্দী নাজিম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আবুল হাসেম বলেন, ‘ফরম ফিলাপের জন্য শিক্ষার্থীদের কাছে তিন হাজার ৫০০ টাকা চাওয়া হয়েছে। তবে এখনো আদায় করিনি। ’

চন্দনবাড়ী এসএ পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. রমিজ উদ্দিন আকন্দ অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, ‘আমরা শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ফরম ফিলাপ বাবদ ১৫০০ টাকা এবং বিদ্যালয় উন্নয়নের জন্য অতিরিক্ত ১২০০ টাকা করে আদায় করছি। ’

এ ব্যাপারে মনোহরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তারিক হাসান বলেন, ‘ফরম পূরণের সময় অতিরিক্ত টাকা আদায় না করতে প্রত্যেক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে চিঠি দেওয়া হয়েছে। তার পরও যদি কেউ অতিরিক্ত টাকা নেয় তাহলে খোঁজ নিয়ে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

# সূত্র: কালেরকন্ঠ/ এলবি

Be the first to comment on "এসএসসির ফরম পূরণের জন্য মনোহরদীতে নেওয়া হচ্ছে বাড়তি টাকা"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*