| ২৩শে আগস্ট, ২০১৯ ইং | ৮ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২১শে জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী | শুক্রবার

যূথবদ্ধ উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে আরেকটি সৃষ্টিষ্টশীল কাজ যোগ হলো- সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন

শরীফ ইকবাল রাসেল, বুধবার, ১২ ডিসেম্বর, নরসিংদী:
নরসিংদী জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন বলেছেন, দেশের প্রতিটি ক্ষেত্রেই যেমন পুরুষের অবদান তেমনি নারীদের অবদানও কোন অংশে কম নয়। আর দেশের প্রতিটি ক্ষেত্রে নারীদের অবদান থাকলেও যুগ যুগ ধরে তাদেরকে অবহেলার মধ্যে রাখা হয়েছিল। কিন্তু এখন সেই সময়কে অতিক্রম করে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এই অবদানের পেছনে সরকার প্রধানও অগ্রণী ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন। এর ফলশ্রুতিতে নারীরা আজ দেশের প্রতিটি ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছেন। ১২ ডিসেম্বর নরসিংদী মুক্ত দিবস উপলক্ষে নরসিংদী সার্কিট হাউজ প্রাঙ্গণে মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় নির্মিত ভাস্কর্য (যূথবদ্ধ: সংগ্রামে-শান্তিতে-সৃস্টিতে) নামের একটি ভাস্কর্য উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।

পরে দিবসটি উপলক্ষে জেলা প্রশাসক সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন এর নেতৃত্বে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে গিয়ে শেষ হয়।
দিবসটি উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শিল্পকলা একাডেমীতে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। নরসিংদী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ এইচ এম জামেরী হাসান এর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে আলোচনা করেন জেলা প্রশাসক সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন। মোতাহার হোসেন অনিকের উপস্থাপনায় মূখ্য আলোচক হিসেবে আলোচনা করেন নরসিংদী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন ভূইয়া, পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন আহমেদ, স্থানীয় সরকার উপ পরিচালক ড. এটিএম মাহবুব উল করীম, দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি প্রফেসর সূর্য্যকান্ত দাস, সেক্টর কমান্ডার ফোরাম নরসিংদী জেলার সভাপতি আব্দুল মোতালিব পাঠান, জেলা পরিষদের সদস্য আব্দুল্লাহ আল মামুন ও রায়পুরা উপজেলার মুক্তিযুদ্ধা পলাশ আহমেদ।

প্রধান অতিথি এসময় আরো বলেন, সারা বাংলাদেশ স্বাধীন হয় ১৬ ডিসেম্বর। কিন্তু এর আগেই ১০ ডিসেম্বর রায়পুরা এবং ১২ ডিসেম্বর সমস্ত নরসিংদী মুক্ত হয়। ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে নরসিংদীর বীর সন্তানদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। এই যুদ্ধে নরসিংদীতে বীরশ্রেষ্ঠ, বীর প্রতিক, বীর বিক্রম, বীর উত্তম সহ সকল সূর্য্য সন্তানই রয়েছেন। তাই এক কথায় বলা চলে মহান মুক্তিযুদ্ধে নরসিংদীাবাসীর ভূমিকা অপরিসীম।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সুষমা সুলতানা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আব্দুল আউয়াল, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সাইফুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকির হাসান, নরসিংদী সরকারী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর মোহাম্মদ আলী, প্রফেসর গোলাম মোস্তাফা মিয়া, সিনিয়র সহকারী কমিশনার লুবনা ফারজানা, সহকারী কমিশনার মো. শাহ আলম মিয়া, রাবেয়া বেগম, মাসুদুল হক, আরাফাত মোহাম্মদ নোমান, শাহরুখ খান, তাহমিনা বেগম, সিলভিয়া সুলতানাসহ সরকারী বেসরকারী বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও শিক্ষার্থী।

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *