| ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং | ৩রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৮ই মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী | বুধবার

টেলিফিল্ম ‘হ্যাকার’/ রাজীব মণি দাসের ‘হ্যাকার’/ ‘হ্যাকার’ আ.খ.ম হাসান

বিনোদন প্রতিদিন। নরসিংদী প্রতিদিন-
রবিবার ১২ মে ২০১৯:
রাজীব মণি দাসের রচনা ও আর.এইচ সােহেলের পরিচালনায় টেলিফিল্ম ‘হ্যাকার’ ১০ মে দুপুর ৩টায় চ্যানেল আই’তে প্রচারিত হয়েছে। টেলিফিল্মের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন আ.খ.ম হাসান, ফারজানা রিক্তা, তারিক স্বপন, নিকুল কুমার মন্ডল, বিপ্লব প্রসাদ, মীর সাখাওয়াত প্রমুখ।
গল্পে দেখা যায়, গ্রামের শিক্ষিত বেকার তিন যুবক পত্রিকায় ‘হ্যাকিংয়ের কবলে বিশ্ব’ শিরােনামের সংবাদ দেখে তারাও হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে অর্থ আত্মসাত করার জন্য আগ্রহী হয়ে উঠে। বুঝে না বুঝে নানান বিষয়ে চর্চা শুরু করে। এমনকি নিজেদের নামে পর্যন্ত পরিবর্তন করে ফেলে তারা। বিশ্ব বিখ্যাত স্মিথ হ্যাকারের নামের সাথে নিজের নাম যােগ করে দেয় আ.খ.ম হাসান। মায়ের টাকা চুরির মাধ্যম তাদের হ্যাকিং জীবনের প্রথম মিশন আরম্ভ হয়। সেই টাকা দিয়ে ল্যাপটপ, ইন্টারনেট এবং দামি পােশাক ক্রয় করে। তাদের ধারণা যেকােনাে বস্তু/মানুষকে হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে এক দেশ থেকে আরেক দেশ নিয়ে যেতে পারবে। স্মিথ হ্যাকারর প্রেমিকা তাদের এই সকল আজগুবি কর্মকান্ড দেখে হতভম্ব হয়ে যায়। ধীর ধীর তিন বন্ধু স্মিথ, মাইকেল ও জেমস হ্যাকারর নাম চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে।
এদিক হঠাৎ করে হ্যাকিংয়ের কবলে পড়ে একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান। প্রশাসন খুঁজতে থাকে সেই হ্যাকার টিমকে। জানতে পারে অজােপাড়া গাঁয়ের তিন যুবক বিভিন্নভাবে হ্যাকিং করে চলছে। পুলিশের ধারণা, এই তিন যুবকই উক্ত প্রতিষ্ঠানের অর্থ হ্যাকিংয়ের সঙ্গে জড়িত। হন্য হয়ে তাদের খুঁজতে থাকে পুলিশ। পত্রিকায় হ্যাকারদের ছবি সংবলিত সংবাদও ছাপানাে হয়। তবে সত্যিকার অর্থ এই তিন যুবক হ্যাকিংয়ের সাথে জড়িত কিনা, তা টেলিফিল্মটির গল্প দেখা যাবে।

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *