1. khandakarshahin@gmail.com : Breaking News : Breaking News
  2. laxman87barman@gmail.com : laxman barman : laxman barman
  3. shahinit.mail@gmail.com : narsingdi : নরসিংদী প্রতিদিন
  4. msprovat@gmail.com : ms provat : ms provat
  5. hsabbirhossain542@gmail.com : সাব্বির হোসেন : সাব্বির হোসেন
বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:২৬ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞাপণ দিতে ০১৭১৮৯০২০১০

আমিরাতে নামাজ শেষে খালি হাতে ফিরেনা কেউ!

ডেস্ক রিপোর্ট | নরসিংদী প্রতিদিন
  • প্রকাশের তারিখ | শনিবার, ২ মার্চ, ২০১৯
  • ৩৩৬ পাঠক

এম.শরীফ হোসেন★
দুবাই থেকে | নরসিংদী প্রতিদিন-
শনিবার,২ মার্চ ২০১৯:
আযান শুনে নামাজ পড়তে মুসুল্লিরা মসজিদে আসবেন আর তারা খালি হাতে রুমে ফিরবেন? না, মসজিদে এমন ঘটনা খুব কমই দেখা যায়। নামাজি ব্যাক্তিরা মসজিদ হতে সহজে খালি হাতে রুমে ফিরেন না।
হ্যাঁ, এটি সত্য এবং বাস্তব। সংযুক্ত আরব আমিরাতের মসজিদ গুলোর প্রতিদিনের চিত্র এটি নামাজ শেষে খালি হাতে ফিরেনা কেউ!।

দুবাই থেকে সরেজমিনে আমাদের নরসিংদী প্রতিদিন ডটকম এর নিজস্ব প্রতিবেদক এম শরিফ হোসেন এ তথ্য চিত্র তুলে ধরেন।
এ শহর ও লোকালয়ের মসজিদ গুলোতে নামাজ শেষে মুসুল্লিরা যেন কেউ খালি হাতে না ফিরে এদিকে সর্বাত্মক নজরদারি রয়েছে মসজিদ কর্তৃপক্ষের। প্রতি ওয়াক্ত নামাজ শেষে মুসুল্লিদের আপ্যায়নের জন্য মসজিদের বারান্দায় রাখা ফ্রেশ পানি,জুস,লেবন আপ (লাচ্ছি),খেজুর অথবা ফলমুলসহ নানান জাতে খাদ্য দ্রব্য।

এসব খাবার প্রবাসি ও স্থানীয় কর্মজীবী বা ব্যাবসায়ী মুসুল্লিগণ নামাজ পরতে এসে একে একে তৃপ্তি ভরে তুলে নিচ্ছে নিজ হাতে। আমিরাতের সরকারী বেসরকারী প্রায় সব মসজিদেই নামাজ পড়তে গেলে এমন দৃশ্য চোঁখে পড়ে।

সপ্তাহ জুড়ে পানীয় জাত বা ফলমুল দিয়ে মুসল্লিদের আপ্যায়ন করা হলেও শুক্রবার জুম্মার নামাজ শেষে থাকে বিশেষ ব্যাবস্থা। পানীয়,ফলমুলের সাথে করা হয় বিরিয়ানির আয়োজন। চিকেন,গরু,দুম্বার অথবা সবজির বিরিয়ানি পেকেট করে মুসল্লিদের হাতে দেয়া হয়। সুসম বন্টনের সার্থে সবাইকে এক কাতারে দাড় করিয়ে জনে জনে একটি করে প্যাকেট সবার হাতে তুলে দেওয়া হয়।

এসময় প্যাকেট বিতরণকালে বিভিন্ন দেশের প্রবাসী শ্রমিকরা সেচ্ছাসেবী হিসেবে দায়িত্ব পালন করে থাকেন।এখানে লক্ষ্য করা যায় যে, সেচ্ছাসেবীদের অধিকাংশই বাংলাদেশী ও পাকিস্তানী নাগরিক। যারা এদেশের বিভিন্ন কোম্পানীতে কর্মরত রয়েছেন।

নিয়মিত নামাজিদের সম্মানার্থে আপ্যায়ন ও কর্মজীবী মুসল্লিদের পাঁচ ওয়াক্ত নামাযে সর্বদা মসজিদ মুখি রাখতেই এমন আয়োজন করা হয় বলে নরসিংদী প্রতিদিন ডটকমকে জানান আহাম্মদ নামে এক সেচ্ছাসেবী খাদেম। তিনি দীর্ঘ বছর ধরে প্রতি শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর স্থানীয় একটি পাকিস্তানী মালিকানাধীন মসজিদে সেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন।

আর আপ্যায়নের আয়োজন করে থাকেন স্থানীয় আরবীয়ান ও মসজিদ পরিচালনা কমিটি।
নিজ নিজ পকেট ও মসজিদের অর্থসহ সরকারী অনুদান থেকে এর খরচ যোগান বলে জানান মসজিদ পরিচালনা কমিটি।



সংবাদটি শেয়ার করিুন

এই পাতার আরও সংবাদ:-



বিজ্ঞাপণ দিতে ০১৭১৮৯০২০১০



DMCA.com Protection Status
টিম-নরসিংদী প্রতিদিন এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে শাহিন আইটি এর একটি প্রতিষ্ঠান-নরসিংদী প্রতিদিন-
Theme Customized BY WooHostBD