1. nahidprodhan143@gmail.com : নরসিংদী প্রতিদিন : নরসিংদী প্রতিদিন
  2. khandakarshahin@gmail.com : Breaking News : Breaking News
  3. laxman87barman@gmail.com : laxman barman : laxman barman
  4. narsingdipratidin.mail@gmail.com : narsingdi :
  5. news@narsingdipratidin.com : নরসিংদী প্রতিদিন : নরসিংদী প্রতিদিন
  6. msprovat@gmail.com : ms provat : ms provat
  7. hsabbirhossain542@gmail.com : সাব্বির হোসেন : সাব্বির হোসেন
  8. subeditor@narsingdipratidin.com : Narsingdi Pratidin : Narsingdi Pratidin
বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১২:৫৩ পূর্বাহ্ন



কুষ্টিয়ায় এস.এস.সি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগে কথিত সাংবাদিকের ২ বছরের কারাদন্ড

রিপোর্টারের নাম
  • প্রকাশিত শুক্রবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭

এস.এম.আবু ওবাইদা-আল-মাহাদী, কুষ্টিয়া: কুষ্টিয়ার মিরপুরে এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগে কথিত সাংবাদিক বহু অপকর্মের হোতা আনোয়ার হোসেন নিশির (৩৬) দুই বছরের কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। এতে এলাকার মানুষ স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছে। বৃহস্পতিবার বেলা ২টায় ভ্র্যাম্যমান আদালত বসিয়ে নিজস্ব কার্যালয়ে বিচারক উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহবুবুর রহমান এসএসসি পরীক্ষার্থীদের নকল সহায়তার উদ্দেশ্যে প্রশ্নপত্র সমাধান করার অপরাধে পাবলিক পরীক্ষা (অপরাধ) আইন ১৯৮০ এর ৯ (গ) ধারায় আনোয়ার হোসেন নিশিকে দুই বছরে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন। সে মিরপুর পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ড নওপাড়া মহল্লার মৃত ইসাহক আলীর ছেলে। সূত্র জানায়, পরীক্ষার শুরুর ৫ মিনিট আগে মিরপুর সরকারী বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্র হতে পদার্থ বিজ্ঞান বিষয়ের প্রশ্নপত্রের ছবি তুলে নিয়ে এসে এক শিক্ষককে দিয়ে সমাধান তৈরী করে। পরবর্তীতে উত্তর পত্রটি স্থানীয় বাজারের একটি দোকান হতে বেশ কয়েকটি ফটোকপি করতে থাকে। এসময়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ওই স্থানে হাজির হয়ে আনোয়ার হোসেন নিশিকে হাতেনাতে ধরে ফেলে নিজস্ব কার্যালয়ে নিয়ে ভ্র্যাম্যমান আদালত বসিয়ে কারাদন্ড প্রদান করেন। তথ্যানুসন্ধানে জানা যায়, আনোয়ার হোসেন দেড়যুগ আগে মিরপুর বাজারে ন্যাশনাল ষ্টুডিও নামে একটা দোকান খুলে বসে। এর আড়ালেই তার অপকর্ম শুরু হয়। সেখানে বিভিন্ন কপোত-কপোতীদের গোপনে মেলামেশার সুযোগ দিয়ে অবৈধ টাকা আয় করে। চাহিদার তুলনায় আয়ের পরিমাণ কম হওয়ায় অপরাধের মাত্রাও বৃদ্ধি পায় তার। এর ধারাবাহিকতায় সাংবাদিকতার ভূয়া কার্ড বানিয়ে এলাকার বিভিন্ন নিরিহ মানুষকে ভয় দেখিয়ে জোরপূর্ব্বক টাকা হাতড়িয়ে নেয়।
অপকর্মের খলনায়ক আনোয়ার হোসেন ওরফে নিশি যোগ্যতা বৃদ্ধির লক্ষে ২০১৪ সালে মিরপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে এসএসসি’র উন্মুক্ত পরীক্ষায় অংশ নেয়। দ্বিতীয় পরীক্ষার দিন খাতা ও প্রশ্নপত্র নিয়ে পরীক্ষার হল ত্যাগ করে বাইরে এসে জনৈক শিক্ষক দিয়ে উত্তরপত্র পূরণ করে পরীক্ষা শেষ হওয়ার ১৫ মিনিটি আগে খাতা জমা দিতে গেলে মিরপুরের তৎকালীন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সিরাজাম মুনিরা হাতেনাতে নিশিকে আটক করে। এরপর স্থানীয় কতিপয় ব্যক্তির সুপারিশে তাকে মুচলেকায় মুক্তি দেয়।
একটা অসমর্থিত সূত্র জানিয়েছে, সাংবাদিকতার ভূয়া পরিচয়ে পিএসসি থেকে এইচএসসি পর্যন্ত প্রতিটি পরীক্ষায় বিভিন্ন কক্ষে প্রবেশ করে টাকার বিনিময়ে চুক্তিভিত্তিক পরীক্ষার্থীদের হাতে নকল সরবরাহ করে থাকে। বিষয়টি নিয়ে এ প্রতিবেদক ব্যাপক অনুসন্ধান করে জানতে পারে নিশির নকল সরবরাহের অভিনব কৌশল। এ বছরের এসএসসি পরীক্ষায় উপজেলার তিনটি স্কুলের ৩০ জন পরীক্ষার্থীর অভিভাবকের কাছ থেকে নিরাপদে নকল সরবরাহের জন্য ৪৫’হাজার টাকা অগ্রিম নিয়ে নেয়। যাদের পরীক্ষা কেন্দ্র ছিল মিরপুর সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে। সে (নিশির) পরীক্ষা শুরুর ৫ মিনিটি আগেই ক্যামেরা বন্দী করে প্রশ্নপত্রটি। এরপর সেটি বাইরে নিয়ে এসে জনৈক শিক্ষকের মাধ্যমে উত্তরপত্র তৈরি করে নির্দিষ্ট পরীক্ষার্থীর হাতে পৌছে দেয়।
স্থানীয় একাধিক গণমাধ্যম কর্মী জানান, গত বছরের ২৩ ডিসেম্বর হতে ২৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত তিনব্যাপী পিআইবি’র আয়োজনে স্থানীয় সাংবাদিকদের বুনিয়াদী প্রশিক্ষণ হয়। প্রশিক্ষণে প্রধান অতিথির বক্তব্য দানকালে মিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সস্পাদক কামারুল আরেফিন পরীক্ষায় নকল সরবরাহ করার অভিযোগ এনে বহুল আলোচিত আনোয়ার হোসেন নিশিকে চরমভাবে শাঁসিয়ে দেন। কিন্তু চোরতো ধর্মের কাহিনি শুনবেনা। আর না শুনলেই দু’বছরের কারাদন্ড!

follow and like us:
0

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
শাহিন আইটির একটি অঙ্গ-প্রতিষ্ঠান